প্রচার বিমুখ মলি নিরবে নিবৃত্তে দাবা উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন।

0
2565

আজকের সোনারগাঁও রিপোর্ট: চট্টগ্রামের মেয়ে মলি শুধু ঘরোয়া অঙ্গনেই নয়, আন্তর্জাতিক পরিসরেও মাহমুদা হক চৌধুরী মলি দাবার জগতে পরিচিত। তিনি একজন জাতীয় দলের খেলোয়াড় । নতুন খেলোয়াড় সৃস্টির লক্ষ্যে সংগঠনিক ভূমিকা রাখছেন । দেশের প্রথম ফিদে মহিলা ইন্সট্রাক্টর পরিচয়ের তিনি একজন পৃষ্ঠপোষক। আর শেষ পরিচয়টি হচ্ছে নিজেই একটি দাবা পরিবার। এসব কিছু ছাপিয়ে গিয়ে তিনি দাবার একজন নিবেদিত কর্মী হিসেবে নিজেকে পরিচয় দিতে স্বাচ্ছন্দবোধ করেন।  প্রচার বিমুখ মলি নিরবে নিবৃত্তে দাবা উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন।
চট্টগ্রামের মেয়ে মলি জাতীয় ভাবে দাবার সঙ্গে সম্পৃক্ত হন ১৯৯৯ সালে। জাতীয় দলের হয়ে ২০১২ সালে তুরস্কের ইস্তাবুলে বিশ্ব দাবা অলিম্পিয়াডে অংশগ্রহণ করেন। ২০১৩ সালের শেষদিকে এসে তিনি সাংগঠনিক দিকটায় ঝুঁকে পড়েন। বাংলাদেশ-থাইল্যান্ড যৌথভাবে তিনি গড়ে তুলেন ইভিকা চেস একাডেমি। পরবর্তীতে এলিগেন্ট ইন্টারন্যাশনাল চেস একাডেমি প্রতিষ্ঠা করে এ প্রতিষ্ঠানের সিইও দায়িত্বে রয়েছেন। ২০১৪ সালে তিনি ফিদে ইন্সট্রাক্টর সেমিনারে অংশ নেন এবং দেশের প্রথম জাতীয় মহিলা ইন্সট্রাক্টর হন। খেলা থেকে সরে দাঁড়ালেও মাঝেমধ্যে আন্তর্জাতিক আসর খেলার চেষ্টা করেন। ২০১৫ সালে নেপালে এশিয়ান জোন ৩.২ চ্যাম্পিয়নশিপ চমৎকার ক্রীড়াশৈলী দেখিয়ে মহিলা ক্যান্ডিডেটমাস্টার খেতাব অর্জন করেন। এছাড়া ২০০৫ সালে ব্যাংকক, ২০০৬ সালে দুবাই, ২০১২ সালে ভারতে কমনওয়েলথ, ২০১৪ সালে শিকাগো ওপেনে অংশ নেন। শুধু তাই নয়, তিনি ২০১১-২০১৫ সাল পর্যন্ত ডিডিএস এসটিএস স্কুলের দাবা শিক্ষক হিসেবে অনেক মেধাবী খেলোয়াড় সৃষ্টি করেন। তার হাতে গড়া এসব শিক্ষার্থীদের নিয়ে তিনি ওয়ার্ল্ড স্কুল চ্যাম্পিয়নশিপ, এশিয়ান ইয়ুথ চ্যাম্পিয়নশিপে অংশগ্রহণ করিয়ে প্রশংসিত হন।
ব্যক্তিগত জীবনে তিনি বিবাহিত তাঁর ছেলে সৈয়দ রিদওয়ান ফারাজ দ্বিতীয় শ্রেণীর ছাত্র। সেও জাতীয় ও আন্তর্জাতিক দাবায় নিয়মিত অংশ নিচ্ছে। তার স্বামী সৈয়দ শাহাবউদ্দিন শামীম বিশিষ্ট শিল্পপতি এবং জাতীয় পর্যায়ের অন্যতম ক্রীড়া সংগঠক। তিনি দীর্ঘদিন ধরে চট্টগ্রাম মোহামেডান স্পোটিং ক্লাবের সাধারণ সস্পাদক, চট্টগ্রাম জেলা ক্রীড়া সংস্থার অতিরিক্ত সাধারণ সস্পাদক এবং বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন। স্বামীর মত মলিও দেশের বেশকিছু ঐতিহ্যবাহী সংগঠনের সঙ্গে সম্পৃক্ত রয়েছেন। ক্রীড়াঙ্গনে মাহমুদা হক চৌধুরী মলির অসামান্য অবদান ও কৃতিত্বকে স্মরণীয় করে রাখতে চেসবিডি ডটকম দেশের প্রথম ফিদে মহিলা ইন্সট্রাক্টর হিসেবে ২০১৫ সালের জন্য তাকে পুরস্কৃত করতে যাচ্ছে। উল্লেখ্য ঘরোয়া দাবার সর্বোচ্চ দলগত আসর আসন্ন প্রিমিয়ার ডিভিশন লিগে তিনি সারা জাগানিয়া দল সাইফ স্পোটিং ক্লাবের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করবেন।