অবশেষে জয়ের দেখা পেল সোনারগাঁও উপজেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট নুরজাহান

0
1616

অবশেষে জয়ের দেখা পেল অ্যাডভোকেট নুরজাহান

হাজী শফিকুল ইসলাম ও বিল্লাল হোসেনঃ- একবার না পাড়িলে দেখ শতবার ছোটকালের সেই কবিতার পথ ধরে বার বার চেষ্টা করে অবশেষে জয়ের মুখ দেখলেন অ্যাডভোকেট নুরজাহান । তিনি ২০১১ সালে অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্ধ›িদ্ধতা করে হেরে যান। ২০১৪ সালে অনুষ্ঠিত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রতিদ্ধ›িদ্ধতা করেছিলেন সোনারগাঁ উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে সেখানে ব্যর্থ হয়েছিলেন। ২০১৬ সালে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সম্ভুপুরা ইউনিয়ন থেকে চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতিক পেয়েও সফলতার মুখ দেখতে পারেননী । এবার নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচনে সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে বিপুল ভোটের ব্যবধানে প্রতিদ্ব›িদ্ধ প্রার্থীকে হারিয়ে জয়ের দেখা পেলেন তিনি । প্রথম বার জেলা পরিষদ নির্বাচনে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারি বাহিনীর  নিরাপত্তা বেষ্টনীর মধ্যে নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচন সোনারগাঁওয়ে শান্তিপূর্ণ ভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। জেলা পরিষদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের ৭, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডে বুধবার সকাল ৯টা থেকে ২ টা পর্যন্ত টানা ভোট গ্রহন শেষে হয়। মোগরাপাড়া, পিরোজপুর, বৈদ্যেরবাজার ও শম্ভুপুরা ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত ৭নং ওয়ার্ড থেকে সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে অ্যাডভোকেট নূরজাহান পেয়েছেন (বই প্রতিক) ২২ ভোট, কোহিনুর ইসলাম রুমা পেয়েছেন (ফুটবল প্রতিক) ১১ ভোট। এ কেন্দ্রে মোট ভোটার সংখ্যা ৫৩ জন। ৮নং ওয়ার্ড গঠিত সোনারগাঁও পৌরসভা, সনমান্দি ও বারদী ইউনিয়ন থেকে সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে অ্যাডভোকেট নূরজাহান (বই প্রতিক) ২১ ভোট পেয়েছেন। কোহিনুর ইসলাম রুমা (ফুটবল প্রতিক) পেয়েছেন ৯ ভোট। এ কেন্দ্রে ভোটর সংখ্যা ৪০ জন। ৯নং ওয়ার্ড গঠিত কাঁচপুর, সাদিপুর, জামপুর ও নোয়াগাঁও ইউনিয়ন থেকে উপজেলা
সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে অ্যাডভোকেট নূরজাহান (বই প্রতিক) পেয়েছেন ২৭ ভোট, কোহিনুর ইসলাম রুমা (ফুটবল প্রতিক) পেয়েছেন ১৬ ভোট ও খালেদা আক্তার রোজি টেবিল (ঘড়ি প্রতিক) পেয়েছেন ৯ ভোট । এ কেন্দ্রে ভোটর সংখ্যা ৫২ জন। সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে অ্যাডভোকেট নুরজাহান (বই প্রতিক) মোট ৭০ ভোট, তার নিকতম প্রতিদ্ব›দ্ধী প্রার্থী কহিনুর ইসলাম রুমা (ফুটবল প্রতিক) মোট ৩৬ ভোট পেয়েছেন। অ্যাডভোকেট নুরজাহান ৩৪ ভোট বেশী পেয়ে বেসরকারী ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।