ঐতিহ্যের ৮০ বছরে মদনপুর রহমানয়িা উচ্চ বিদ্যালয়ের গৌরবময় সাফল্য।

0
1187

দ্বীনইসলাম অনকিঃ-নারায়ণগঞ্জ জেলার বন্দর উপজেলাধীন মদনপুর এলাকার কৃতসিন্তান মরহুম আলহাজ্ব আব্দূর রহমান ভূইয়া এই এলাকার অবহলেতি জনগনরে মাঝে শক্ষিার আলো ছড়য়িে দতিে ১৯৩৭ সালে নজি গ্রামে মদনপুর প্রাথমকি বদ্যিালয় ও মদনপুর রহমানয়িা উচ্চ বদ্যিালয় প্রতষ্ঠিার জন্য ভূমদিান করনে এবং ভবন নর্মিাণ ও শক্ষিকদরে বতেনরে জন্য তনিি অকাতরে দুহাত ভরে দান করে গছেনে।প্রতষ্ঠিার পর থকেে র্দীঘ ৮০ বছরে হাজার হাজার শিক্ষার্থী এই প্রতষ্ঠিান থকেে শক্ষিা লাভ করে দশেরে বভিন্নি গুরুত্বর্পূণ কাজে দায়ত্বি পালন করছনে।বদ্যিালয়টি বন্দর উপজলোর র্সবশষে অঞ্চলরে শক্ষিার মান উন্নয়ণে বন্দর থানার র্সবশষে উত্তরে মদনপুর ইউনয়িনরে মদনপুর এলাকায় প্রতষ্ঠিতি হয়।প্রতষ্ঠিার পর থকেইে স্কুলটি বভিন্নি চরাই উৎরাই পার করে অতকিষ্টে শক্ষিা র্কাযক্রম চালয়িে যাচ্ছ।েএই বদ্যিালয়টি বন্দর থানার র্সবশষে অঞ্চলে অবস্থিত হওয়ার কারণে উন্নয়ণরে জন্য কোন ভাবইে নতোর্কমীদরে নকে নজরে আসতে পারনে।ির্বতমানে মদনপুর রহমানয়িা উচ্চ বদ্যিালয়রে বচিক্ষণ ও সুশৃঙ্খল ম্যানেজিং কমটিরি সঠকি ও নর্ভিূল পরচিালনার দরুন বন্দর থানা তথা নারায়ণগঞ্জ জলোর মধ্যে একটি জনপ্রয়ি স্কুল হসিবেে পরচিতিি পয়েছে বর্তমানে স্কুলটির সভাপতির দায়ত্বি পালন করছনে অত্র প্রতষ্ঠিানরে পরচিতি ব্যাক্তত্বি জনাব আঃহাই ভূইয়া ভারপ্রাপ্ত প্রধান শক্ষিক হসিবেে সুনামরে সাথে দায়ত্বি পালন করছনে জনাব বদরুল আলম বাদল, সহকারী শক্ষিক হসিবেে আছনে মাওলানা মোঃ ইলয়িাছ,জনাব আবুল খায়রে সহ আরোও অনকেে ম্যানেজিং কমিটির সদস্য হসিবেে কঠোর নয়িমনীতরি সাথে দায়ত্বি পালন করছনে মোঃ ইমরান,মনরিুজ্জামান মনু সহ সকল সদস্যবৃন্দ।মদনপুর রহমানয়িা উচ্চ বদ্যিালয়রে র্বতমান শক্ষর্িাথী সংখ্যা ২০৪৪জন,এবছর জএেসসি পরিক্ষার্থী ছিলো ৪১০জন পাশ করছেে ৪০২জন এবছর জপিএি ৫ পয়েছেে ৬৩জন।মদনপুর রহমানয়িা উচ্চ বদ্যিালয়রে সাফল্যে আনন্দ প্রকাশ করে একজন অভভিাবক সাংবাদকিদরে বলনে”আমার সন্তান এই বদ্যিালয়ে লখোপড়া করে আজ জএেসসি পরক্ষিায় জপিএি ৫পয়েছেে আমি মনকেরি আমার সন্তানরে এই সাফল্যরে পছেনে সবচয়েে বড় অবদান এই স্কুলরে শক্ষিক,শক্ষিকিা,ম্যানেজিং কমটিরি সর্তক নজরদারী ও আমার সন্তানরে কঠোর পরশ্রিম।আমরা চাই এই স্কুলটির র্সাবকি উন্নয়ণে জেলা প্রশাসন ও বন্দর উপজলো শক্ষিা অফসি সহ যথাযথ র্কতৃপক্ষ সব সময় সুদৃষ্টি রাখবনে।