বন্দরে একজন শিক্ষক দিয়েই চলছে একটি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়

0
3787

এমডি অনিকঃ- বাংলাদেশের প্রাথমিক শিক্ষার গুণগত মাণউন্নয়ণে বর্তমান সরকার নানাবিধ কর্মসূচি হাতে নিয়েছে।প্রাথমিক শিক্ষা থেকে কোন শিশু যেনো বাদ না পরে সে জন্য প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে।বর্তমান সরকারের সব প্রচেষ্টার পরও নারায়ণগঞ্জ জেলার বন্দর উপজেলাধীন ৭১নং কাইনলী ভিটা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়টি মাত্র একজন শিক্ষক দিয়ে প্রায়( ) জন ছাত্র/ছাত্রীকে বর্তমান স্কুল কমিটির সভাপতি ও সদস্যদের সার্বিক সহযোগিতায় শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করে যাচ্ছে।৭১নং কাইনলী ভিটা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে এবছর প্রাথমিক সমাপনী পরিক্ষায় ১৪জন শিক্ষার্থী অংশ গ্রহণ করে ১৪জনই কৃতকার্য হওয়ার পাশাপাশি ৩টি জিপিএ-৫ সহ সকল শিক্ষার্থী সুনামের সাথে পাশ করেছে।এছাড়া বিগত বছর গুলোতেও শতভাগ কৃতকার্য হয়ে তাদের সফলতার ধারাবাহিকতা ধরে রেখেছে।দীর্ঘদিন ধরে শিক্ষক সংকটের কথা উপজেলা প্রশাসনের কাছে বলেও এই সংকটের কোন সমাধান না পেয়ে বিদ্যালয়ের সভাপতি জনাব আলহাজ্ব হোসাইন মেম্বার ও কমিটির অন্যান্য সদস্যদের সার্বিক সহযোগিতায় নিজস্ব অর্থে অতিরিক্ত শিক্ষক নিয়োগ করে ২০০৮সাল থেকে বর্তমান পর্যন্ত শিক্ষা কর্যক্রম পরিচালনা করে যাচ্ছে।এছাড়া স্কুলটির সীমানা প্রাচীর ও পরিত্যাক্ত পুকুর ভরে স্কুলের খেলার মাঠ তৈরীতে কমিটির সকল সদস্য ও স্কুলের জমিদাতাসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ একমত হয়ে কাজ করতে লিখিত ভাবে চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত প্রকাশ করেছে।এ ব্যাপারে স্কুলটির বর্তমান সভাপতি আলহাজ্ব হোসাইন মেম্বার বলেন”৭১নং কাইনলী ভিটা স্কুলটির সার্বিক উন্নয়ণে কমিটির সকল সদস্য এবং এলাকার গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গের সহযোগিতায় এবং সুপরামর্শের ভিত্তিতে কাজ করে যাবো,সরকারী ভাবে আমাদের এই শতভাগ কৃতকার্য হওয়া স্কুলটির পর্যাপ্ত শিক্ষক/শিক্ষিকা নিয়োগ এবং যাবতীয় সরকারী উন্নয়ণমূলক কাজ বর্তমান সরকার সুষ্ঠুভাবে করবেন বলে আশা করি।স্কুলটি পর্যবেক্ষণ করতে গেলে স্থানীয় কয়েকজন সাংবাদিকদের বলেন”স্কুলটির সার্বিক উন্নয়ণে বর্তমান কমিটির লোকজন নানা রকম বাধার সম্মুখীন হয়েও স্কুলের উন্নয়ণে দিন রাত পরিশ্রম করে যাচ্ছে,স্কুলটিতে পর্যাপ্ত শিক্ষক নিয়োগ দিলে ছাত্র/ছাত্রী সংখ্যা আরোও অনেক বৃদ্ধি পাবে এবং ফলাফলের দিক দিয়েও স্কুলটি সুনাম অর্জন করবে।এমতাবস্থায় এই এলাকার জনপ্রতিনিধি সহ সকলের প্রাণের দাবী কাইনলীভিটা স্কুলটিতে পর্যাপ্ত শিক্ষক নিয়োগ দিয়ে স্কুলটির সার্বিক উন্নয়ণে যথাযথ প্রশাসন ও বন্দরের সংসদ সদস্য একেএম সেলিম ওসমানের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।