সোনারগাঁওয়ে বাড়ির সীমানা নিয়ে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত-১৫॥ বাড়িঘর ভাংচুর, লুটপাট

0
3512

মো. বিল্লাল হোসেন ঃ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার বারদি ইউনিয়নের দূর্ঘম চরাঞ্চল নুনেরটেক (চুয়াডাঙ্গা) এলাকায় বাড়ির সীমানা নিয়ে বিরোধের জের ধরে হযরত আলী গ্রুপ এবং আব্দুল ওহাব দু’গ্রুপের সংঘর্ষে মহিলাসহ উভয় পক্ষের ১৫ জন আহত হয়েছে। এ সময় উভয় গ্রুপের বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনাও ঘটেছে।  বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টার দিকে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন, মহসিন গ্রুপের হরযত আলী, খুকী আক্তার, জামিলা খাতুন, মহসিন এবং আব্দুল ওহাব গ্রুপের আব্দুল ওহাব, ইব্রাহিম, বাতেন, হক মিয়া, মহসিন, জাকির, শাহিন, মাহাবুব মিয়া, বাছিরুন নেছা ও করিমুন নেছা নামে মহিলাসহ ১৫ জন । আহতদের সোনারগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ব্যাপারে উভয় পক্ষ বাদি হয়ে সোনারগাঁও থানায় অভিযোগ করেছেন।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘ দিন যাবত হযরত আলী ও আব্দুল ওহাবের বাড়ির সীমানা নিয়ে বিরোধ চলছিল। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে স্থানীয়  লোকমান মেম্বার ও বিএনপি নেতা দেলোয়ারের উপস্থিতিতে সীমানা নির্ধারণের কাজ শুরু করে। এ সময় হযরত আলী ক্ষিপ্ত হয়ে প্রতিপক্ষ আব্দুল ওহাবের সঙ্গে বাকবিতন্ডা শুরু করলে, উভয় গ্রুপ ধারালো রামদা, লোহার রড, লাঠিসোটা নিয়ে একে অপরের উপর হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত জখন করে। এ সময় উভয় গ্রুপ একে অপর গ্রুপের বাড়িঘর ভাংচুর ও ১০ লাখ টাকার মালামাল লুটপাট করেছে বলে অভিযোগ রয়েছে।
এব্যাপারে সোনারগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ্ মো. মঞ্জুর কাদের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, উভয় পক্ষ থানায় অভিযোগ করেছেন, তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।