বন্দরে  খুন হওয়া মনিরের পরিবারের দিন কাটে চেয়ারম্যান ছালাম এর আতংকে

0
626

বন্দর প্রতিনিধি:- গত কয়েক দিন আগেএক নাবাল্লক বাচ্চাকে সিগারেট না দেওয়া ঘটনাকে কেন্দ্র করে বন্দর উপজেলার কেওঢালা এলাকায় প্রতিপক্ষ সুজামিয়ার ছেলে মোস্তফা,সফিক ,মাহমুদ,মাসুম,সৈকত, সহ ১০থেকে১২জনের হামলায় মারাত্বক ভাবে ৪ জন আহত হয় তার মধ্যে মনির কয়েক দিন আইসিউতে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জালড়ে গত রবিবার রাত ১১টায় মৃত্যুবরণ করেন। এদের মধ্যে মনিরের স্ত্রী সালমা বলেন আমার স্বামীকে ঐ জুলুমবাজ চেয়ারম্যানের আদেশেই ওর ভাগীনারা বেদম মারধর করেন, ওনাকে লোহার রড ও ক্রিকেটের বেট দিয়ে বেদম পেটায়, তার ছোট মেয়ে ছাদিয়া বলেন আমার বাবারে ছালাম চেয়ারম্যান মাইরাফালাইছে, আমি এর ফাসিঁ চাই।এ বিষয়ে মদনপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের আপন ভাগীনা হওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে সত্য কথাও বলতে সাহস পাচ্ছে না ।এদিকে চেয়ারম্যান সালাম নিজে তার ভাগ্নেদের বিচার না করে আহত সফিক ও আহতের পরিবারকে প্রাণ-নাশের হুমকি দিচ্ছেন,সে বলেন সফিক তুই হাত্তির পাঁচপাও দেখছস ,মামলা করতে আইসছ মামলা কে নেয় আমি তা দেখব ,আমি বেচেঁ থাকলে ওদের কে ছাড়িয়ে-নিয়ে আসবো। এ দিকে মৃত্ মনিরের পরিবারের পাশে তো দুরকথা মনিরের জানাজায় ও আসেনি ঐ জনপ্রদিনিধি চেয়ারম্যান সালাম। চেয়ারম্যান সালাম ও তার ভাগ্নে বাহিনি ভিবিন্ন ভাবে হুমকি দিচ্ছেন ও মামলা তোলার জন্য ভয়ভিতি দেখানোর অভিযোগ মৃত্ মনিরের পরিবারের । এই জুলুমবাজ চেয়ারম্যান ছালাম ও তার বাহিনির হাত থেকে রক্ষা পেতে চায় নিহত মনিরের পরিবার , তাদের আর্তনাদ আমরাকি পাবো এই বিচার ? এর জন্য আমরা আল্লাহর কাছে এবং এম,পি মহাদয় বর্তমান নারায়ণগঞ্জ ৫ আসনের সাংসদ এ কে এম সেলিম-ওসমানের ও স্থানীয় প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।চেয়ারম্যান ছালাম অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন এটা আমার বিরুদ্ধে অপ প্রচার ।