স্বাধীনতা যুদ্ধের ঐতিহাসিক ছবির সেই তিন কিশোর মুক্তিযোদ্ধা পেল সংবর্ধনা

0
5054

Untitled-02 - Copy

আব্দুল খালেক, আব্দুল মজিদ আর মজিবুর রহমান। মুক্তিযুদ্ধের চিরচেনা সেই আলোকচিত্রের তিন কিশোর মুক্তিযোদ্ধা- একাত্তরে দেশমাতৃকার ডাকে সাড়া দিয়ে নিতান্ত কাঁচা বয়সে যাঁরা হাতে তুলে নিয়েছিলেন লড়াইয়ের হাতিয়ার। তিনজনই দেলদুয়ার উপজেলার এলাসিন ইউনিয়নের মুশুরিয়া গ্রামের বাসিন্দা। প্রথম দুজন এখনো জীবিত আছেন। তৃতীয়জন চলে গেছেন কয়েক বছর আগে না ফেরার দেশে। মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে আয়োজিত মুক্তিযোদ্ধা সংবর্ধনায় এই তিন মুক্তিসেনাকে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে সম্মাননা জানানো হয়।

২৬ মার্চ সকালে দেলদুয়ার স্টেডিয়ামে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মোঃ শাহাদত হোসেন কবিরের সভাপতিত্বে  সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মুক্তিযোদ্ধাদের হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট ও শুভেচ্ছা উপহার তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি টাঙ্গাইল-৬ (দেলদুয়ার-নাগরপুর) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব খন্দকার আব্দুল বাতেন। তিনি উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগকে সাধুবাদ জানান এবং ভবিষ্যতে এরূপ কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য ইউএনওর প্রতি অনুরোধ জানান।

মরহুম মজিবুর রহমানের পক্ষ থেকে তাঁর স্ত্রী সাহাতুন আক্তার ক্রেস্ট গ্রহণ করেন। সম্মাননাপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধাদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন আব্দুল খালেক। উল্লেখ্য, এর আগে গত বিজয় দিবসে সফল মুক্তিযোদ্ধা অভিভাবকদেরকে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সম্মাননা জানানো হয়েছিল। উপজেলা নির্বাহী অফিসার জানান, এই তিন মুক্তিযোদ্ধার ছবি মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম প্রতীক হিসেবে গত ৪৬ বছর যাবৎ বিভিন্ন মাধ্যমে স্থান পেয়ে আসছে। এঁদের ছবি দিয়ে জাতি মুক্তিযুদ্ধের গৌরব নতুন প্রজন্মের কাছে ফুটিয়ে তুলছে। কিন্তু এই তিনজনের পরিচয় অনেকেই জানতেন না। এবার দেলদুয়ার উপজেলা প্রশাসনের স্বাধীনতা দিবসের আমন্ত্রণপত্রে তাঁদের ছবির পাশাপাশি তিনজনের পরিচিতি, বর্তমান অবস্থা দেশের জন্য ত্যাগ এবং ছবি তোলার পটভূমি সংক্ষেপে তুলে ধরা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় এবারের স্বাধীনতা দিবসে তাঁদের অবদানকে সম্মাননা জানানো হল।
অনুষ্ঠানে দেলদুয়ার উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এসএম ফেরদৌস আহমেদ, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আবু তাহের বাবলু, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ফজলুল হক ও সাধারণ সম্পাদক শিবলী সাদিক, সরকারি কর্মকর্তা, স্থানীয় সুধীজন এবং উপজেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।17553863_1935389460023468_2553788755622415520_n 17505022_1935391556689925_4774852984668540587_o17424664_1935391990023215_3295110753810502897_n 17424772_1935391553356592_7873639860102778154_n