সোনারগাঁয়ের ছনকান্দা এলাকায় পৈত্রিক সম্পতি জোর পূর্বক দখলের পায়তারা

0
771

Untitled-02 - Copy

দ্বীন ইসলাম – পিতার নিজ হাতে লিখে দেওয়া সম্পত্তি থেকে সৎ ভাইকে বাদ দিয়ে জাল দলিল তৈরী করে জোরপূর্বক সম্পদ দখলের পায়তারা করছে আরিফুল ইসলাম ও ইসমাইল হোসেন।ঘটনার বিবরণে জানা গেছে নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁ উপজেলাধীন সনমানদী ইউপির ছনকান্দা এলাকার মৃত আশ্রাব আলীর ছেলে মোঃ আক্কাস আলীর দুই সংসারের ৪ছেলে  আরিফুল,ইসমাইল,আনোয়ার ও আকাবর হোসেনের নামে যথাক্রমে আড়াই শতাংশ,চার শতাংশ,সাড়ে নয় শতাংশ ও দুই শতাংশ জমি ২৯-১২-২০১১ ইং তারিখে লিখে দেয়ার পর দীর্ঘ দিন যাবত যার যার সম্পত্তি দখল করে বসবাস করে আসছিলো।পরবর্তীতে আনোয়ারের পিতা আক্কাস আলী মারা যাওয়ার পর তার সৎ ভাই আরিফ ও ইসমাইল মিলে কিছু অসৎ ব্যাক্তির সাহায্যে টাকার জোরে মূল রেকর্ড থেকে আনোয়ারের নাম বাতিল করে জাল দলিল তৈরী করে আনোয়ারের সাড়ে নয় শতাংশ জমি জোরপূর্বক দখলের পায়তারা করছে তারই সৎ ভাই আরিফুল ইসলাম ও ইসমাইল।সত্যতা যাচাইয়ের জন্য সরেজমিনে ছনকান্দা এলাকায় গিয়ে কয়েকজন স্থানীয় এলাকাবাসীর সাথে কথা বললে হাবিজুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন”আনোয়ারের এই সাড়ে নয় শতাংশ জমি নিয়ে তার ভাই আরিফুল ও ইসমাইলের সাথে দীর্ঘ দিন জামেলা হওয়ার পর আমরা এলাকাবাসী এবং বিভিন্ন এলাকার গণ্যমান্য ব্যাক্তি মিলে তাদের কাগজপত্র দেখে আনোয়ারের পক্ষে রায় দেই,আমরা সকলেই জানি এই জমির প্রকৃত মালিক আনোয়ার।আলী হোসেন বলেন”প্রায় তিন বছর আগে তাদের এই জমি নিয়ে ভাইয়ে ভাইয়ে হট্রগোল হওয়ার পর দলিল অনুযায়ী জমির মালিক আনোয়ারকে আমরা জমি বুঝিয়ে দিয়েছি।একই এলাকার আঃ মতিন বলেন”আক্কাস আলী নিজে তার ছেলেদের জমি লিখে দিয়ে যাওয়ার পর আনোয়ারের জমি নিয়ে যে জামেলা হয় তা আমরা এলাকাবাসীরা দলিল দেখে আনোয়ারের পক্ষে রায় দেওয়ার পর তার ঐ জায়গায় ঘর নির্মাণ করে বসবাস করে আসছে।আনোয়ারের সৎ ভাই আরিফুল ও ইসমাইলের অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট।এ ব্যাপারে জমির মূল মালিক আনোয়ার বলেন”আমার পিতা আক্কাস আলী একজন সৎ ও নিষ্ঠাবান ব্যাক্তি ছিলেন,তিনি আমাদের ভাইদের যে পরিমানে জমি লিখে দিয়ে গেছেন আমরা সকলেই তা মেনে নিয়ে শান্তিপূর্ণ ভাবে বসবাস করে আসছি,কিন্তু আমার সৎ ভাই আরিফুল ও ইসমাইল একজোট হয়ে টাকার জোরে আমার পিতার নিজ হাতে লিখে দেওয়া জমির মালিকানা থেকে আমার নাম রেকর্ড থেকে বাদ দিয়ে জাল দলিল তৈরী করে আমার বসতভিটা থেকে আমাকে ও আমার অসহায় মাকে বিতারিত করার পায়তারা করছে,এমনকি তারা বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন লোক দ্বারা আমাকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে যাচ্ছে।আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা তথ্য দিয়ে থানা পুলিশ দিয়ে আমাকে ও আমার পরিবারকে নিয়ে মিথ্যা অপপ্রচার চালাচ্ছে। পৈত্রিক সম্পত্তি রক্ষা এবং আমার মায়ের বসতভিটা রক্ষায় যথাযথ প্রশাসন ও জেলা পুলিশ সুপারের সহযোগিতা  চান আনোয়ার