সোনারগাঁ পৌরসভার কাউন্সিলরকে পিটিয়ে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ

0
3290

Untitled-02 - Copy

আজকের সোনারগাওঃ  সরকারি খাল দখল ও মসজিদের জায়গা দখলে বাধা দেওয়ায় নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ পৌরসভার এক কাউন্সিলরকে পিটিয়ে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে ছাত্রলীগ নামধারী সন্ত্রাসীরা। গতকাল শনিবার বিকেলে এবিষয়ে আহত কাউন্সিলর দুলাল মিয়া বাদী হয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।
লিখিত অভিযোগে কাউন্সিলর দুলাল মিয়া উল্লেখ্য করেছেন,সোনারগাঁ পৌরসভার ষোলপাড়া এলাকায় সরকারি খাল ও উত্তর ষোলপাড়া শাহী মসজিদের জায়গা জোর পূর্বক দখলকরে স্থানীয় প্রভাবশালী বাবুল মিয়া নামে এক ব্যাক্তি। অবৈধ ভাবে জায়গা দখলে বাঁধা দেয় সোনারগাঁ পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর দুলাল মিয়া। এতে বাবুল হোসেনের ভাড়াটে সন্ত্রাসী সোনারগাঁ পৌরসভা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি নবনূর সাবিত হোসেন,মজিবুর রহমান,রাকিব হোসেন,মোবারেক মিয়া ও রাহাত হোসেন সহ ৮-১০ জনের একদল সন্ত্রাসী বাহিনী দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে হামলা চালিয়ে কাউন্সিলর দুলাল মিয়াকে পিটিয়ে আহত করে তারা। আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে সোনারগাঁ উপজেলা সাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে এলাকাবাসীরা।
আহত কাউন্সিলর দুলাল মিয়া বলেন, সরকারি খাল ও মসজিদের জায়গা দখল করে জোর পূর্বক সেতু নির্মান করছে প্রভাবশালী বাবুল হোসেন। এতে আমরা বাধা দিলে তার ভারাটে সন্ত্রাসী নবনূর সাবিত হোসেনের নেতৃত্বে হামলা চালিয়ে আমাকে পিটিয়ে আহত করা হয়েছে। এসময় সন্ত্রাসীরা আমাকে প্রানে মেরে ফেলার হুমকি দেয়।
এবিষয়ে জানতে চাইলে বাবুল হোসেন ও নবনূর সাবিত হোসেন তাদের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ অস্বীকার করেন তারা। সোনারগাঁ উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক রাসেল মাহমুদ বলেন,নবনূর সাবিত হোসেন নামে আমাদের ছাত্রলীগ এর কমিটিতে কেউ নেই। দলের নাম ভাঙ্গিয়ে কেউ অপকর্ম করলে তাদের বিরুদ্ধে দলীয়ভাবে ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে। সোনারগাঁ থানার ওসি মঞ্জুর কাদের বলেন এবিষয়ে লিখিত অভিযোগ নেওয়া হয়েছে তদন্ত করে ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।