জঙ্গীবাদ প্রতিরোধে ও সচেতনতা সৃষ্টিতে আড়াইহাজারে প্রতিটি ঘরে ঘরে পুলিশ যাবে …..অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মতিউয়ার রহমান

0
433

Untitled-02 - Copy
আড়াইহাজার প্রতিনিধি:নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে থানা চত্ত্বরে বৃহম্পতিবার জঙ্গীবাদ প্রতিরোধে জনসচেতনতা সৃষ্টি ও ভাড়াটিয়ার তথ্য ফরম বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়েছে। এসময় নারায়ণগঞ্জ জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মোহাম্মদ মতিউয়ার রহমান বলেন, জঙ্গীবাদ প্রতিরোধে ও জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে উপজেলার প্রতিটি ঘরে ঘরে পুলিশের সদস্যরা যাবেন। জনপ্রতিনিধি ও সমাজের গন্যমান্য ব্যাক্তিরাসহ ভাড়াটিয়াদের সম্পর্কে সঠিক তথ্য সংগ্রহে পুলিশকে সাহা করতে হবে। জেলা পুলিশের এই কর্মকর্তা জঙ্গীবাদের কৌশল সম্পর্কে আলোকপাত করেন। তিনি বলেন, জঙ্গীরা স্বল্প সময়ের জন্য ঘর ভাড়া নিয়ে থাকেন। ঘন ঘন বাসা পরিবর্তন করেন। তারা সাধারণরত ১ থেকে ২ জন মহিলা ছোট বাচ্চাসহ বাসা ভাড়া নেয়, যাতে আপাততদৃষ্টিতে মনে হয় যে তারা পরিবারসহ বসবাস করছে। পরিচয় গোপন করে বা মিথ্যা পরিচয় দিয়ে বাসা ভাড়া নিয়ে থাকেন। প্রতিবেশীদের সাথে যোগাযোগ রাখে না। ফ্যামিলি হিসাবে বাসা ভাড়া নিয়ে পরে মাঝে মাঝে একাধিক যুবক সদস্য বাসায় অবস্থঅন করে। এসময় পুলিশ সুপার উপস্থিত সকলকে অবহিত করে আরো বলেন, বাসায় আসবাবপত্র কম থাকে। কোনো কোনো ক্ষেত্রে খাটিয়া বা চৌকি কোনোটাই থাকে না।কোনো টিলিভিশন থাকে না। তারা সাধারণ মসজিদে যায়না। সকল নামাজ বাসায় আদায় করে। শব্দকম করে এবং বাসায় সর্বদা নিরব থাকেন। বাসায় দরজা ও জানালা বেশির ভাগ সময় বন্ধ থাকে। এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা পুলিশের সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার আবদুল্যাহ আল-মাসুদ, আড়াইহাজার থানা অফিসাস ইনচার্জ সাখাওয়াত হোসেন, ওসি তদন্ত শফিউল আজম খান, গোপালদী পুলিশ ফাঁড়ির ওসি আহসান, স্থানীয় ফতেপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবু তালেব মোল্লা, আড়াইহাজার সরকারি সফর আলী কলেজের সাবেক ভিপি নাঈম আহম্মেদ মোল্লা ও আমির হোসেনসহ উপজেলা ও ইউনিয়ন কমিনিটি পুলিশের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকগন।