সোনারগাঁয়ে গাছ কেটে বাগানবাড়ি দখলে বাঁধা দেয়ায় স্বামী-স্ত্রীকে পিটিয়ে আহত ॥ গ্রেপ্তার-১

0
521

Untitled-02 - Copy
আজকের সোনারগাঁওঃ সোনারগাঁয়ে এক নিরীহ পরিবারের বাগানবাড়ির গাছ কেটে দখলের চেষ্টা করেছে সন্ত্রাসীরা। এ সময় সন্ত্রাসীদের দখলে বাঁধা দেয়ায় স্বামী-স্ত্রীকে পিটিয়ে আহত করা হয়েছে। এ ঘটনায় মোশারফ হোসেন (২৪) নামের এক সন্ত্রাসীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গত মঙ্গলবার রাতে সনমান্দি কাটাখালী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
জানাগেছে, উপজেলা সনমান্দি ইউপি কাটাখালী গ্রামের মো. জয়নাল উদ্দিনের ছেলে মো.কবির হোসেনের সঙ্গে একই গ্রামের মৃত এবাদউল্লাহর ছেলে সুরুজ মিয়া, ফিরোজ মিয়া ও চাঁন মিয়ার সঙ্গে জমিজমা নিয়ে আদালতে মামলা চলছে। এমতবস্থায় গত মঙ্গলবার রাতে পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে দা, কুড়াল, কড়াত, লোহার রড ও কাঠের এবং বাঁশের লাঠিসোটা নিয়ে ফিরোজ মিয়ার নেতৃত্বে ২০-২৫ জনের একদল সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে কবির হোসেনের বাগানবাড়ি দখলে নিতে গাছ কাটা শুরু করে। বাগান বাড়ির গাছ কেটে ঘর নির্মাণ করছে এ খবর পেয়ে কবির হোসেনে বাবা জয়নাল উদ্দিন ও তার মা রহিমা বেগম সন্ত্রাসীদের বাধা দেয়। এসময় সন্ত্রাসীরা ক্ষিপ্ত হয়ে স্বামী-স্ত্রীকে এলোপাথারী ভাবে মারধর শুরু করে। এসময় স্বামী-স্ত্রী গুরুতর আহত হয়ে পড়ে। তাদের ডাক-চিৎকারে আশপাশের লোকজন উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় আহত জয়নাল উদ্দিনের ছেলে কবির হোসেন বাদি হয়ে সোনারগাঁও থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এ অভিযোগের পেক্ষিতে সোনারগাঁও থানার অসিার ইনচার্জ (ওসি) শাহ মো. মঞ্জুর কাদের দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠান। ঘটনাস্থলে পুলিশ ঘটনার সতত্যা প্রমানিত হলে মোশারফ হোসেন নামের এক সন্ত্রাসী গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারকৃত সন্ত্রাসীকে গতকাল বুধবার আদালতে সোপর্দ করেছে। কবির হোসেন জানান, বাড়ির গাছ কাটায় বাধা দেওয়ায় মা-বাবাকে পিটিয়ে আহত করেছে সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনায় আমি নিরুপায় হয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করায় আসামীরা ক্ষিপ্ত হয়ে ফের বাবা-মাকে মারধর করে এবং হত্যা হুমকি দিচ্ছে ফিরোজ মিয়া।