সোনারগাঁওয়ে হত্যার ৭২ ঘন্টার মধ্যে স্বামীর নতুন বউ ঘরে ॥ ৫৫ দিন পর কবর থেকে লাশ উত্তোলন

0
24386

আজকের সোনারগাঁওঃ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়ন দুধঘাটা এলাকায় রোববার দুপুরে ইতি আক্তার (১৯) নামে এক গৃহবধুর লাশ ১ মাস ২৫ দিন পর কবর থেকে উত্তোলন করেছে সোনারগাঁও থানা পুলিশ। নিহত গৃহবধূ ইতি আক্তার দুধঘাটা গ্রামের আঃ মজিদের ছেলে সৌদি প্রবাসি ইয়াছিন ওরফে জুয়েল স্ত্রী। নিহত ইতি আক্তার জেলার বন্দর থানার মালিবাগ গ্রামের মুল্লুক চাঁন মিয়ার মেয়ে।  দুপুরে সোনারগাঁও উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) রুবায়েত হায়াত শিপলুর উপস্থিতিতে পুলিশের এসআই শাহ কামাল সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে গৃহবধূ ইতি আক্তারের লাশ কবর থেকে উত্তোলণ করে জেলা হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। নিহত ইতি আক্তারের বড় বোন মামলার বাদিনী রোখসানা আক্তার জানান, গত ২৫ মার্চ রাতে পরিকল্পিতভাবে তার ছোট বোন ইতি আক্তারকে শ্বশুর বাড়ির লোকজন বালিশ চাপা দিয়ে শ্বাসরোধ করে নির্মমভাবে হত্যা করে। ২৬ মার্চ ইতি আক্তারের পরিবারের কোন অনুমতি ছাড়াই দুধঘাটা এলাকায় লাশ দাফন করা হয়। গত ২০১৬ সালে ৩ মার্চ ইতি আক্তারকে স্বামী ইয়াছিন ওরফে জুয়েল তার নিজের পছন্দে পরিবারের অমতে বিয়ে করে সৌদি আরবে চলে যায়। এদিকে ইতি আক্তার খুব সুন্দরী হওয়ায় স্বামী জুয়েলের অনুপস্থিতির সুযোগে ননদের জামাই আল আমিন তার সঙ্গে অবৈধ দৈহিক সম্পর্ক করার জন্য সব সময় উক্ত্যক্ত করতো। পরে লম্পট ননদের জামাই আল আমিনের ব্যাপারে পারিবারিক ভাবে কয়েক দফা শালিসও হয়। এদিকে ইতি আক্তারের লাশ ২৬ মার্চ দাফন করার পরের দিন ২৭ মার্চ তার স্বামী জুয়েল সৌদি আরব থেকে দেশে এসে ৪ দিন পরই শিলা আক্তার নামে অন্য এক মেয়েকে বিয়ে করে ঘর সংসার শুরু করে। এ ব্যাপারে ইতি আক্তারের বড় বোন রোখসানা আক্তার গত ৪ মার্চ ৭জনকে আসামী করে নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেন। পরে হত্যা মামলার ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার জন্য জুয়েলের বাবা আঃ মজিদ লোকজন নিয়ে জোর চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হন। এদিকে হত্যা মামলার বাদি রোখসানা আক্তার ক্ষোভের সঙ্গে বলেন, আমার বোনের হত্যাকারিরা প্রকাশ্যে ঘুরলেও পুলিশ অজ্ঞাত কারনে গ্রেফতার করছেন না। তিনি আরো বলেন, আমরা দরিদ্র পুলিশকে টাকা-পয়সা না দিতে পারায় পুলিশের কাছে ন্যায় বিচার না পাওয়াই আশঙ্কা করেন।
এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা শাহ কামালের সঙ্গে কথা হলে তিনি বলেন, হত্যাকারিদের গ্রেফতার করতে অভিযান চলছে। (ছবিতে ইতি আক্তার পাশে কবর থেকে তার লাশ উত্তোলন)