আপত্তিকর ছবি ফেইসবুকে আপলোডের হুকমী দিয়ে অপহরণ: আটক-১

0
506

Untitled-02 - Copy

আজকের সোনারগাওঃ গোপনে আপত্তিকর ছবি তুলে তা ফেইসবুকে আপলোডের হুমকী দিয়ে নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে শুক্রবার দুপুরে খাদিজা ওরফে লাবন্য নামে এক স্কুলছাত্রীকে অপহরণ করা হয়েছে। এ ঘটনার তিনদিনের মাথায় রবিবার মামলা নিয়েছে পুলিশ।  । লাবন্য থানা বিএনপির সভাপতি প্রার্থী আনোয়ার হোসেন অনু’র আপন ভাতিজী এবং আড়াইহাজার পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী। তার পিতার নাম হাজী মোশারফ হোসেন রেনু মিয়া। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ফাইম নামে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। সে উপজেলার ঝাউগড়া এলাকার জামালউদ্দিনের ছেলে।
অপহৃতার পিতা মোশারফ জানান, বিগত কিছু দিন ধরে ঝাউগড়া এলাকার ফাইমসহ আরও কিছু বখাটে যুবক লাবন্য কে স্কুলে যাওয়ার-আসা সময় উত্যক্ত করত এবং মোবাইলে গোপনে লাবন্যের আপত্তিকর ছবি উঠাতো। এক পর্যায়ে তাকে প্রেমের প্রস্তাব দেয়া হয়। পরে তা প্রত্যাখান করা হলে ফেইসবুকে আপত্তিকর ছবি আপলোড করার হুমকী দিয়ে তাকে ব্লাকমেইল করতে থাকে। শুক্রবার দুপুরে লাবন্যকে ছবি ফেরত দেয়ার কথা বলে তাকে এক বন্ধুর বাসায় যেতে বলা হয়। লোকলজ্জার ভয়ে ফাইমের কথামতো দেখা করতে গিয়ে সে অপহরণের শিকার হয়। এসময় সে লাবন্য পরিবারের উদ্দেশ্যে একটি চিরকূট লিখে যায়।

এদিকে অপহরণকারীর পিতা জামালউদ্দিন বলেন, আমিও চাই মেয়েটিকে উদ্ধার করা হোক। আমার ছেলে অপরাধী হলে আমি তার শাস্তির দাবী করছি।

এদিকে, আনোয়ার হোসেন অনু বলেন, আমি থানা বিএনপির সভাপতি প্রার্থী। রাজনৈতিকভাবে আমার সাথে অনেকের দ্বন্দ্ব থাকতে পারে। আমার ভাতিজীকে দুবৃর্ত্তরা অপহরণ করে নিয়ে গেছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে আমি দাবী জানাচ্ছি তাকে যেন দ্রুত উদ্ধার করে সুস্থ্যভাবে আমাদের কাছে ফিরিয়ে দেয়া হয়।

আড়াইহাজার থানার ওসি মো: সাখাওয়াত হোসেন বলেন, এ ঘটনায় একটি মামলায় হয়েছে। ভিকটিমের বাড়ি থেকে একটি চিরকূট উদ্ধার করা হয়েছে। তাতে ফাইম নামে এক যুবকের নাম লিখা রয়েছে। ওই যুবককে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে রবিবার রাত ৯ টার সময় কমলাপুর রেল ষ্টেশন থেকে উদ্ধার করা হয়েছে ।