আড়াইহাজারে স্কুলছাত্রী হত্যা মামলায় আটক-১

0
319

আজকের সোনারগাঁওঃ নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে রুমি আক্তার (১৫) নামে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যার ঘটনায় শুক্রবার সকালে পুলিশ সন্দেহভাজন আজিজুল নামে স্থানীয় এক পোল্ট্রি ব্যবসায়ীকে আটক করেছে। সে ফাউসা এলাকার লোকমানের ছেলে। পুলিশের দাবী প্রাথমিক জিজ্ঞাবাদে আটক আজিজুল ধর্ষণ ও হত্যার দায় শিকার করেছেন। এদিকে, আজিজুলের বাবার দাবী তার ছেলের কাছ থেকে পুলিশ জোরপূর্বক স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী নেওয়ার চেষ্টা করছে। এর আগে অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে নিহতের মা ফজিলা বাদী হয়ে বৃহম্পতিবার মামলাটি দায়ের করেন। আড়াইহাজার থানার ওসি সাখাওয়াত হোসেন বলেন, মোবাইল কলের সূত্র ধরে এলাকায় অভিযান চালিয়ে আজিজুলকে আটক করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাবাদে সে ধর্ষণ ও হত্যার দায় শিকার করেছে। ওসি আরও বলেন, তাকে আরও জিজ্ঞাবাদ করা হচ্ছে। এ ঘটনায় আরও কারা জড়িত রয়েছেন। তাদের বিষয়েও জানার চেষ্টা করা হচ্ছে। এদিকে, আজিজুলের বাবা লোকমান বলেন, ঘটনার দিন রাতে তার ছেলে তার সাথে নিজের ঘরেই ঘুমিয়ে ছিল। একটি মোবাইল কলের সূত্র ধরে পুলিশ তাকে আটক করলেও তার ছেলে নির্দোষ। তিনি আরও বলেন, তার মোবাইল দিয়ে প্রায় সময় নিহত রুমি মা বিভিন্ন স্থানে কথা বলতেন। এদিকে, মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই এনামলের কাছে স্থানীয় সাংবাদিকরা মামলার তথ্য জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের এড়িয়ে যান। এমনকি তিনি আটককৃতের নাম পরিচয় জানাতেও অপারগতা প্রকাশ করেন। প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার রাতে প্রকৃতির ডাকে ঘর থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হয়। অনেক খোঁজাখুঁজি করে তাকে পাওয়া যাচ্ছিল না। বুধবার রাতে স্থানীয় ব্রাহ্মন্দী পশ্চিপাড়া এলাকায় একটি ধৈঞ্চা ক্ষেত থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। তার গলায় ওড়না পেঁচানো ছিল। সে ব্রাহ্মন্দী পশ্চিমপাড়া এলাকার ইদ্রিস আলীর মেয়ে এবং স্থানীয় কলাগাছিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণীর ছাত্রী।

উত্তর দিন