নির্যাতনওযৌতুক দাবি॥সোনারগাঁওয়ে স্ত্রীর মামলায় স্বামী গ্রেফতার

0
535

আজকের সোনারগাঁওঃ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে স্ত্রীকে নির্যাতন ও যৌতুক দাবির অভিযোগে মঙ্গলবার সকালে ফরিদ মিয়াকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ । এর আগে তার স্ত্রী রাবেয়া আক্তার আছমা বাদি হয়ে নারায়ণগঞ্জ আদালতে যৌতুক ও নারী নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। আসামি ফরিদ মিয়া সোনারগাঁও থানার পেরাব গ্রামের মৃত ওহেদ মিয়ার ছেলে। রূপগঞ্জের কাঞ্চন পৌরসভার আতলাশপুর এলাকার আব্দুর রহমানের মেয়ে রাবেয়া আক্তার আছমা জানান, বেশ কিছুদিন ধরে তার স্বামী ফরিদ মিয়া দুই লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে আসছিল। যৌতুকের টাকা দিতে অস্বীকার করায় প্রতিনিয়ত আছমাকে তার স্বামী ফরিদ মিয়া ও দেবর সোবহান মিয়া মারধর করতো। ২০০০ সালের ১ নভেম্বর ইসলামী শরিয়াহ মোতাবেক আছমা ও ফরিদের বিয়ে হয়। বিয়েতে আছমার বৃদ্ধ বাবা আব্দুর রহমান নগদ ২ লাখ টাকা যৌতুকসহ স্বর্ণালংকার দেয়া হয়। গত কয়েকদিন ধরে যৌতুক দাবি করে তাকে মারধর করতো। তাদের সংসারে নুসরাত জাহান (১৫) ও সিয়াম (১০) নামে দুইজন সন্তান রয়েছে। গত ২৭ জুন স্ত্রীকে মারধর করে ছেলে মেয়েসহ বাড়ি থেকে বের করে দেয়। এ ঘটনায় রাবেয়া আক্তার আছমা বাদি হয়ে মামলা দায়ের করলে পুলিশ ফরিদ মিয়াকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত আসামীকে  মঙ্গলবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ জেলহাজতে প্রেরণ করে। সোনারগাঁও থানার উপ-পরিদর্শক সাধন চন্দ্র বসাক জানান, গ্রেফতারকৃত ফরিদ মিয়া একজন ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি। তাকে মঙ্গলবার জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।