এমপি খোকার উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি যার গায়ে তার নাম ২০ নং পাকুন্দা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়

0
1034

Untitled-02-Copy-150x150
আজকের সোনারগাঁওঃ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার সবখানে  এমপি লিয়াকত হোসেন খোকার উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে দাবী দলীয় নেতাকর্মীদের। কিন্ত এমপি খোকার উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি যার গায়ে তার নাম   ২০ নং পাকুন্দা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ।  বেহাল অবস্থা জামপুর ইউনিয়নের এই বিদ্যালয়টির । ভবনের উপরের চাল নষ্ট হয়ে গেছে , বৃষ্টির সময়ে পানি পড়ে, রোদের সময় বাচ্চদের মাথায় উপরে রোদের তাপ লাগে। দীর্ঘ কয়েক বছর থেকে ঝুঁকিপূর্ণ হলেও  বিকল্প কোন ব্যবস্থ না হওয়ায় বাধ্য হয়ে ঝুঁকি নিয়ে শিক্ষার্থীদের পাঠদান দিতে হচ্ছে শিক্ষকদের। পাঠদানের অনুপযোগী শ্রেনী ও ঝুঁকিপূর্ণ ভবনের কারণে শিক্ষার্থীরা বিদ্যালয়ের যাওয়ার আগ্রহ হারাচ্ছে। আর সঠিক সময়ে শিক্ষার্থীদের পাঠদান দিতে পাড়ছে না শিক্ষকরা। পাশাপাশি অনেকটা চিন্তিত ও শস্কিত হয়ে পড়েছেন অভিভাবক মহল। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বিদ্যালয়টিতে রয়েছে  তিনটি ক্লাশরুম। ছাত্র ছাত্রীর সংখ্যা ৩৩৫ জন । পুরাতন একাডেমিক ভবনের ০৪ টি কক্ষের টিনের ছাদ নষ্ট হয়ে গেছে, সামনের বারান্দার খুঁটির রডগুলো শুধু দাঁড়িয়ে আছে। দরজা-জানালা কিছুই নেই এবং আবার একটু খানি বৃষ্টি হলেই স্কুল ছুটি, ক্লাশ করার কোন উপায় নেই। শিক্ষার্থীরা জানায়, স্কুল ঘরটি ভাঙ্গা থাকায় অনেকে এখন স্কুলে আসে না। একটু খানি বৃষ্টি হলেই আমাদের স্কুল ছুটি দিয়ে দেয়।  বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব মো. হুমায়ন কবির ভূইয়া জানায়, আমাদের গ্রামের স্কুলের পুরাতন ভবনের বেহাল দশার কথা প্রতিমাসে যথাযথ কতৃপক্ষকে অবগতি করে আসছি । আশার বানী ছারা কিছুই পাইনি। এ ব্যপারে উপজেলা শিক্ষা অফিসার (প্রাথমিক) আ ফ ম জাহিদ ইকবাল বলেন স্কুলটির সংস্কার কাজের জন্য আপাদত ২ লাখ টাকা বরাদ্দের ব্যবস্থা করা হয়েছে । এলাকাবাসীর দাবী  এমপি লিয়াকত হোসেন খোকা যেন বিদ্যালয়টির উন্নয়নে পদক্ষেপ নেন।