কালাম আগামী সংসদ নির্বাচনের যোগ্য নেতা ॥আওয়ামীলীগ যাকে মনোনয়ন দিবে আমরা তার হয়ে কাজ করব…আঃ হাই

0
1557

 

আজকের সোনারগাঁওঃ ইউনেস্কো কর্তৃক মহান স্বাধীনতার স্থপতি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ই  মার্চের ভাষণকে বিশ্ব প্রমান্য ঐতিহ্য ( ওয়ার্ল্ড ডকুমেন্টারি হেরিটেজ ) হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ায় ।
সোমবার সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান কালামের নেতৃত্বে শতাধিক গাড়ীর বহরে কয়েক হাজার নেতাকর্মী নিয়ে  একটি আনন্দ  র‍্যালী বের করেন  ।
সকাল দশটায় র‍্যালীর উদ্বোধন করেন নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আবু হাসনাত মোঃ শহিদ বাদল  । উদ্বোধনী বক্তব্যে আবু হাসনাত মোঃ শহিদ বাদল বলেন, ইউনেস্কো জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ৭ ই মার্চের ভাষনকে ওয়াল্ড ডকুমেন্টারি হেরিটেজ হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে প্রমান করেছে যে ঘাতক জিয়াউর রহমান স্বাধীনতার ঘোষক ছিলেন না। দেশের মানুষকে বি এন পির নেতারা জিয়াউর রহমান স্বাধীনতার ঘোষক বলে যে মিথ্যে প্রচারনা চালিয়েছে সে জন্য জনগনের কাছে তাদের ক্ষমা চাওয়া উচিৎ ।
তিনি বলেন, সোনারগাঁও ও নারায়নগঞ্জের রাজপথের অত্বন্ত পরিচিত মুখ, আপনাদের প্রিয় নেতা। সাবেক ছাত্রলীগনেতা ও রাজপথের লড়াকু সৈনিক বর্তমানে সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক মাহফুজুর রহমান কালাম আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতিক নিয়ে সোনারগাঁও থেকে নির্বাচন করার জন্য সবচেয়ে যোগ্যতম নেতা । সোনারগাঁওয়ে আওয়ামী লীগ থেকে অনেক ব্যক্তিই মনোনয়নের জন্য বিভিন্ন ভাবে । এখানে অনেক নেতা আছে কিন্তু রাজপথের ও কর্মীবান্ধব নেতা একজনই, সে হচ্ছ মাহফুজুর রহমান কালাম। আপনারা সবসময় কালামের পাশে থেকে রাজনৈতিক ভাবে হাতকে আরো শক্তিশালী করার জন্য ও  আগামী নির্বাচনে সোনারগাঁও থেকে মাহফুজুর রহমান কালামকে এম পি করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে উপহার দেওয়ার জন্য ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করুন।
আমরা নারায়নগঞ্জের পাঁচটি আসনেই আওয়ামী লীগের প্রার্থীতা চাই । নারায়নগঞ্জের পাঁচটি আসনের কোনটিতে আমরা অন্য কোনো দলের প্রার্থীতা চাইনা।
র‍্যালীতে অংশ গ্রহণের জন্য সোনারগাঁও পৌরসভা ও উপজেলার দশটি ইউনিয়নের নেতাকর্মীদের পৃথক ভাবে ব্যান্ডপার্টি  নিয়ে খুব সকাল থেকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মোগরাপাড়া চৌরাস্তায় জড়ো হতে দেখা যায় ।
পরে সকাল সাড়ে দশটায় সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান কালাম
তার হাজার হাজার কর্মী নিয়ে আনন্দ র‍্যালী বের করেন । কর্মীরা ঢাক ঢোল পিটিয়ে মাইক ও স্পিকারে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু মজিবুর রহমানের ৭ ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ বাজিয়ে অত্যন্ত উৎসবমুখর পরিবেশে আনন্দ র‍্যালীতে
 অংশ নেয় ।
র‍্যালীটি মোগরাপাড়া চৌরাস্তা ছাড়াও মেঘনা শিল্প নগরী , সোনারগাঁও উপজেলা , সোনারগাঁও পৌরসভা, বৈদ্যের বাজার , আনন্দবাজার, বারদী , জামপুর, নয়াপুর বাজার , সাদিপুর, নয়াগাঁও , মজুমপুর বাজার, সনমান্দী ইউনিয়ন, কাঁচপুরসহ বিভিন্ন ইউনিয়ন প্রদক্ষিণ করে সন্ধায় সোনারগাঁও লোক ও কারুশিল্প সংলগ্ন মাহফুজুর রহমান কালামের রাজনৈতিক কার্যলয়ে এসে শেষ হয়।
দুপুরে কিছু সময়ের জন্য বিরতি দিয়ে নয়াপুরে মাঠে  সাদিপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাদিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুর রশিদ মোল্লার উদ্যোগে নেতাকর্মীদের জন্য  মধ্যাহ্ন ভোজের অনুষ্ঠানে র‍্যালীতে আগত হাজার হাজার নেতাকর্মীদের নিয়ে মাহফুজুর রহমান কালাম মধ্যাহ্ন ভোজ করেন ।
মধ্যাহ্ন ভোজ শেষে র‍্যালীটি কাঁচপুরে গেলে নারায়নগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাই র‍্যালীতে যোগদিয়ে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বলেন, জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একাত্তরের ঐতিহাসিক ৭ ই মার্চের ভাষন ইউনেস্কোর “মেমোরি অব দ্যা ওয়ার্ল্ড ” ইন্টারন্যাশনাল রেজিষ্টার স্বারকে যুক্ত হওয়ায় বঙ্গালী জাতি হিসেবে আমরা গর্ভিত।
তিনি নেতাকর্মীদের বলেন, আওয়ামী লীগ যাকে মনোনয়ন দিবে আমরা তার হয়ে কাজ করবো। সোনারগাঁওয়ে মাহফুজুর রহমান কালাম আগামী সংসদ নির্বাচনের জন্য যোগ্য নেতা। আপনারা কালামের নেতৃত্বে মাঠে থেকে নৌকা ও কালামে জন্য কাজ করে যান।
র‍্যালীতে থেকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রচেষ্টায়
ইউনেস্কো কর্তৃক মহান স্বাধীনতার স্থপতি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ই  মার্চের ভাষণকে বিশ্ব প্রমান্য ঐতিহ্য ( ওয়ার্ল্ড ডকুমেন্টারি হেরিটেজ ) হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ায় । মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ইউনেস্কো কর্তৃপক্ষকে  সোনারগাঁও বাসীর  পক্ষ থেকে সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান কালাম শুভেচ্ছা সম্বলিত লিফলেট বিতরণ করেন ।
উল্লেখ্য , ৩০ অক্টোবর ২০১৭ ইউনেস্কোর হেড কোয়ার্টারের মহাপরিচালক ইরিনা বোকোভা জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ৭ ই মার্চের ভাষণকে বিশ্ব প্রমান্য ঐতিহ্য ( ওয়ার্ল্ড ডকুমেন্টারি হেরিটেজ ) হিসেবে ঘোষণা দেন ।
তিনি বলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ ই মার্চের ভাষণকে বিশ্ব আন্তর্জাতিক রেজিস্টার মেমোরিতে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে । জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শুধু বাংলাদেশের আপামর জনতার নেতাই ছিলেন না , তিনি ছিলেন সারা বিশ্বের নিপীড়িত , নির্যাতিত মানুষের নেতা ।
১৯৭১ সালের ৭ই মার্চ ভাষণে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের স্বাধীনতার ডাক দিয়েছিলেন ।
তাঁর ডাকে সারা দিয়ে বাঙালীজাতি পাকিস্তানী হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে যুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েন । নয় মাস রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের পর বাংলাদেশ স্বাধীনতা লাভ করে ।
এই অনাবদ্য স্বীকৃতি সারা বিশ্বের বাঙালি জাতিকে সম্মানিত করেছে । ইউনেস্কোর দেওয়া  অনাবদ্য স্বীকৃতিকে সম্মান জানিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দলীয় কর্মসূচির গ্রহণ করেছে । তারই ধারাবাহিকতায় পূর্বের ন্যায় এবারও
দলীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে সোনারগাঁও  উপজেলার আওয়ামী লীগের  ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান কালাম এই আনন্দ র‍্যালীর আয়োজন করেন ।
এসময় র‍্যালীতে নারায়নগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আঃ হাই সাহেব, নারায়নগঞ্জ জেলা পরিষদের সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান মাসুম, সোনারগাঁও পৌরসভা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক গাজী আমজাদ হোসেন, জামপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও সোনারগাঁও উপজেলা জনপ্রতিনিধি ঐক্য ফোরামের নেতা হা-মীম সিকদার শীপলু, সনমান্দী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সাহাবুদ্দিন সাবু, নারায়নগঞ্জ জেলা তাঁতী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি দেওয়ান কামাল, নারায়নগঞ্জ জেলা যুব আইনজীবী পরিষদের সভাপতি এড.ফজলে রাব্বী,সোনারগাঁ উপজেলা শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক ডাঃ মোঃ অালমগীর হোসন,উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি রাসেল মাহমুদ, সনমান্দী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ইসাক মিয়াসহ ছাত্রলীগ, যুবলীগ,তাঁতী লীগ,শ্রমীক লীগসহ আওয়ামী লীগের অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা  উপস্থিত ছিলেন।