সোনারগাঁয়ে রোবায়েত হোসেন শান্তর অন্দোলন নিয়ে এলাকায় মিশ্র প্রতিক্রিয়া

0
1402

Untitled-02-Copy-150x150

আজকের সোনারগাঁওঃ সোনারগাঁয়ের বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দের প্রশ্নবিদ্ধ নানা রকম কার্যক্রম নিয়ে চায়ের কাপে ঝড় তুলছে সাধারণ লোকজন । প্রশ্ন উঠেছে ঐ এলাকার রোবায়েত হোসেন শান্তর বিভিন্ন সময় বিভন্ন বিষয় নিয়ে আন্দোলনে নামা পরবর্তীতে নিজের আখের গুছিয়ে নিরাপদ দুরত্বে সরে যাওয়া । সোনারগাঁ উপজেলার বৈদ্যেরবাজার এলাকায় বালু ভরাটকে কেন্দ্র করে গত মঙ্গলবার সকালে দুই পক্ষের মধ্যে সৃষ্ট গোলাযোগে রোবায়েত হোসেন শান্তকে আটক করে সোনারগাঁ থানা পুলিশ । আল মোস্তফা গ্রুপের জায়গায় বালু ভরাট করতে গিয়ে মেরীখালি খাল ভরাট করার অভিযোগে গত সোমবার মানব বন্ধনে নেতৃত্ব দেন তিনি । এ বিষয় নিয়ে সোনারগাঁয়ে কয়েকটি গ্রুপ সৃষ্টি হয়েছে । গত মঙ্গলবার দিনভর চলে বিভিন্ন দলের মহরা । কেউ কেউ বলছে সব কিছুই আসলে স্বর্থের সুতোয় বাধা । নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক ব্যক্তি বলেন বলেন বালু ভরাটকে কেন্দ্র করে যে নাটক হচ্ছে এটা শধুই টাকার ভাগাভাগী পাওয়া না পাওয়ার দ্বন্দ । হাড়িয়া সাত ভাই পাড়া এলাকার নুর আলম ও জাহিদুল ক্ষোভের সহিত বলেন,রোবায়েত হোসেন শান্ত কখনও গ্যাসের টাকার ভাগ না পেয়ে উতালা হয় ভাগ পেলে শান্ত হয়। জনগনের গ্যাসের টাকা মেরে দিয়ে এলাকা থেকে উদাও হয়ে কিছু দিন এলাকায় ছিল না । এখন আবার বালুর টাকার ভাগ পেলে আবার শান্ত হয়ে যাবে । আসলে সমাজের জন্য মন দিয়ে কেউ কিছু ই করছেনা শুধুই মায়া কান্না আর স্বার্থ হাসিলের নাটক করছে সবাই । আটকের কথা স্বীকার করে রোবায়েত হোসেন শান্ত জানান আসলে আটক নয় আমাকে কিছু জিজ্ঞেস করার জন্য থানায় নিয়ে যাওয়া হেেছ । সোনারগাঁ থানার ভার প্রাপ্ত কর্মকর্তা মোর্শেদ আলম (পিপিএম) বলেন রোবায়েত হায়াত শান্তকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসা হয়েছে পরে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ্।