পরকীয়ার বলি মারজিয়া ! স্বামী ও দেবর গ্রেফতার

0
638

আজকের সোনারগাঁওঃ পরকীয়া প্রেমে বাঁধা দেয়ায় মারজিয়া আক্তার (২৮) নামে তিন সন্তানের জননীকে গলাটিপে হত্যার ঘটনায় জড়িত স্বামী আজিজুল (৩৫) ও দেবর জসিমকে (২৮), দেড় মাস পর গাজীপুর থেকে গ্রেফতার করেছে সোনারগাঁও থানার পুলিশ।
(১৬ ডিসেম্বর) শনিবার রাত ১০টার দিকে তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে সোনারগাঁও থানার পুলিশের উপ-পরিদর্শক আব্দুল হক সিকদার গাজীপুর জেলার টঙ্গী থানার আরিচপুর এলাকা থেকে গৃহবধূর ঘাতক স্বামী আজিজুল ও দেবর জসিমকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসেন।

উল্লেখ্য, গত ২ নভেম্বর উপজেলার সনমান্দি ইউনিয়নের ফতেপুর দড়িকান্দি গ্রামের নুরুজ্জামানের ছেলে স্বামী আজিজুলের পরকীয়া প্রেমে বাঁধা দেয়ায় তিন সন্তানের জননী স্ত্রী মারজিয়া আক্তারকে গলাটিপে হত্যা করে পরিবারের লোকজনসহ পালিয়ে যায়।
মামলা বাদী নিহতের ভাই ওমর ফারুক জানান, তিনি জামপুর ইউনিয়নের মুছারচর গ্রামের শুক্কুর আলীর ছেলে, গত ১০ বছর আগে পার্শ্ববর্তী সনমান্দি ইউনিয়নের ফতেপুর দড়িকান্দি গ্রামের নুরুজ্জামানের ছেলে আজিজুলের সঙ্গে পারিবারিকভাবে বিবাহ দেয়। বিবাহর পর তাদের মিথিলা (৮), অন্যন্যা আক্তার (৬) ও ৪ মাসের শরীফ নামে একটি শিশু ছেলেসহ তিনটি সন্তান জন্ম হয়। গত ৮ মাস যাবত আজিজুল নয়াপুর মৈষটেক এলাকায় গার্মেন্টস কর্মী নিলুফা নামে এক নারীর পরকীয়ার জড়িয়ে পড়ে। স্বামী আজিজুলের পরকীয়ার বিষয়টি স্ত্রী মারজিয়া জেনে যাওয়ায় বাঁধা দেয়। এরপর থেকে প্রায় ৭-৮ মাস যাবত স্বামী ও স্ত্রীর দুজনের মধ্যে ঝগড়া শুরু হয়। এরই জের ধরে গত ২ নভেম্বর রাতে মারজিয়াকে গলাটিপে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে ঘাতক আজিজুল পালিয়ে যায়।