মিথ্যা মামলা আর প্রতিপক্ষের ক্ষমতার দাপটে বাড়ি ঘর ছাড়া মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়া রাকিবের পরিবার

0
604

 

আজকের সোনারগাঁওঃনারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের নাগেরগাঁও এলাকায় বাড়ির সিমানার গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে রাকিব নামে এক যুবককে ধারালো দা দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মকভাবে আহত করেছে রবিউল বাহিনীর সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনার ৪দিন পর গত সোমবার উল্টা সন্ত্রাসী রবিউলের মা মাসুদা বেগম বাদী হয়ে সোনারগাঁও থানায় একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করে বাড়িঘর ছাড়া করেছে রাকিবের পরিবারকে।   উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের নাগেরগাঁও এলাকার দরিদ্র ইদ্রিস আলীর পরিবারকে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী করছে বলে অভিযোগ উঠেছে একই এলাকার মোতালেবের ছেলে রবিউলের বিরুদ্ধে। এলাকাবাসীর সুত্রে জানা গেছে নাগেরগাঁও গ্রামের আক্রমআলীর ছেলে ইদ্রিস আলী একজন দিনমুজুর । বাড়ির সিমানার গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে ইদ্রিস আলীর ছেলে রাকিবকে ধারালো দা দিয়ে কুপিয়ে মাথায় রক্তাত্ত জখম করে বখাটে রবিউল । গুরতর আহত অবস্থায় রাকিবকে সোনারগাঁ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে অবস্থার অবনতী হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাকিবকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করে। বর্তমানে রাকিব মুমুর্ষ অবস্থায় মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে বলে জানায় তার পরিবারের লোকজন । রাকিবের বাবা ইদ্রিস আলী বলেন, আমি গরিব বলে আমার প্রতি অন্যায় করা হচ্ছে । সামান্য গাছকাটা নিয়ে আমার ছেলেকে মোতালেবের ছেলে রবিউল দা দিয়ে কুপিয়ে হাসপাতালে পাঠিয়ে এখন তারাই আমার পুরোপরিবারের লোকজনদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে আমাদের বাড়ি ঘর ছাড়া রাখছে । ছেলে হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে আর আমরা বাড়ি ঘর ছাড়া থাকছি । মোতালেবের ছেলে রবিউল এলাকায় বিভিন্ন সময়ে প্রকাশ্যে বিভিন্ন অপরাধমুলক কাজ করে বেরায় । তার ভয়ে এলাকার কেউ মুখ খুলতে পাড়েনা । তার রোষানলে পরে মিথ্যা মামলার শিকার হয়ে আজ আমরা অসহায় অবস্থায় দিন কাটাচ্ছি ।  গত বুধবার ২৭ ডিসেম্বর উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের নাগেরগাঁও বাড়ির সিমানার গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে একই গ্রামের মোতালেবের ছেলে রবিউল, মানিকসহ ৫-৬জন সন্ত্রাসী মিলে দেশীয় ধারালো অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে তাদের বাড়িতে গিয়ে হামলা চালায়। এ সময় সন্ত্রাসীরা ধারালো দা দিয়ে রাকিবের মাথায় এলাপাতারী ভাবে কুপিয়ে মারাত্মকভাবে আহত করে। পরে গুরতর আহত অবস্থায় রাকিবকে সোনারগাঁও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে, কর্তব্যরত চিকিৎসক রাকিবকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়। বর্তমানে মুমূর্ষু অবস্থায় মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে বলে রাকিবের পরিবারের লোকজন জানান। এ ব্যাপারে মিথ্যা মামলা শিকার আহত রাকিবের বাবা উদ্রিস আলী পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সুদৃষ্টি কামনা করছেন।