মিন্টু হত্যা মামলার প্রধান আসামী সন্ত্রাসী জাকির ও আলো কক্সবাজার থেকে গ্রেফতার

0
663

আজকের সোনারগাঁওঃ সোনারগাঁ উপজেলার ছোট সাদিপুর এলাকার মিন্টুকে হত্যার প্রধান আসামী জাকির হোসেন এবং সহযোগী আলোকে কক্সবাজার থেকে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ ।নারায়ণগঞ্জ ডিবি পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মনিরুল ইসলাম সংবাদসম্মেলনে জানান ,মিন্টুকে পিটিয়ে হত্যার পরে গা ঢাকা দেয় প্রধান আসামী সন্ত্রাসী জাকির সহ ১৩ আসামী । পালিয়ে জাকির কক্সবাজার এলাকায় আছে মর্মে গোয়েন্দা তর্থ্যের ভিত্তিতে গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে বন্দেরা গ্রামের রফিকের ছেলে জাকির হোসেন এবংসারোয়ার ওরফে সরবতের ছেলে অলো ওরফে অালমকে কক্সবাজার এলাকা থেকে গ্রেফতার করে কক্সবাজার জেলা ডিবি পুলিশ । আসামীদের কক্সবাজার জেলার পশ্চিম গোমতলী এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয় । গ্রেফতারকালে জাকির ও আলো ঐ এলাকার সাম্পানে (নৌকা) ঘুমিয়ে ছিল। মিন্টু হত্যা মামলায় এ যাবতকালে জয়নাল সহ ৩ জন আসামী গ্রেফতার করা হয়েছে। উল্লেখ সোনারগাঁও উপজেলার মোগরাপাড়া ইউনিয়নের ছোট সাদীপুর গ্রামের মোতাহারের মেয়ে ডেমরা শামসুল হক উইম্যান্স কলেজ দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী মিতু গত বৃহস্পতিবার কলেজ থেকে বাড়ি ফেরার পথে বন্ধেরা গ্রামের রফিকুলের ছেলে জাকির হোসেন ও তার সহযোগীরা মিতুর পথ রোধ করে অশ্লীল আচরন করে । এ নিয়ে মিতু গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করতে গেলে পরিবারের লোকজন বিষয়টি জেনে বখাটেদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করলে ঘটনা সংঘরষের রূপ নেয় । ঘটনার পরদিন শুক্রবার সকালে মিতুর মামাতো ভাই সুলতান আহম্মেদ মিন্টু মোগরাপাড়া বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে জাকির ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী তাকে রাস্তায় একা পেয়ে তার উপর হামলা করে পিটিয়ে আহত করে ফেলে রেখে চলে যায় । গুরুতর আহত অবস্থায় প্রথমে তাকে সোনারগাঁও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয় অবস্থার অবনতি হলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দুই দিন চিকিৎসা দেয়া হয় । রবিবার সকালে আরো উন্নত চিকৎসার জন্য ঢাকা ধানমন্ডী নর্দান হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানকার কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে|
সুলতান আহম্মেদ মিন্টুর মৃত্যুর খবর তার এলাকায় ছড়িয়ে পরলে ইভটেজারদের বাড়ি ঘরে হামলা চালালে শুরু হয় ধাওয়া পালটা ধাওয়া।
সে সময় ছোট সাদীপুর গ্রামের চার পাচটি বসত ঘরে ভাংচুর,দোকানে লুটপাট ও আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটেছিল।