মহাসড়কের পাশে বাই-লেন করার দাবীতে মানব বন্ধন

0
579

নারায়ণগঞ্জের মেঘনা শিল্পাঞ্চল থেকে কাঁচপুর পর্যন্ত অটোরিক্সা, সিএনজি ও লেগুনা চলাচলের জন্য বাইলেইন করার দাবীতে শান্তিপূর্ণ মানব বন্ধন করেন ভুক্তভোগী হাজার হাজার নারী-পুরুষ।  সকাল ১০ টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পার্শ্বে মোগরাপাড়া চৌরাস্তার লিজা পাম্পের সামনে এ মানববন্ধন করেন জেলা ও উপজেলা শ্রমিক লীগের নেতাকর্মী, স্থানীয়গ্রামবাসী, চালক ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা।
জেলা শ্রমিকলীগের সহ সাধারন সম্পাদক নূর-নবী জানান, প্রধান সড়কে অটো রিকশা চলাচলে নিষেধাজ্ঞার কারনে স্থানীয় লোকজনের চলাচল করতে দূর্ভোগের শিকার হতে হচ্ছে। এতে মহাসড়কে বেড়ে যাচ্ছে র্দূর্ঘটনা। তাই আমরা সকলের মঙ্গলের জন্য শান্তিপূর্ন মানববন্ধন কর্মসূচী, সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রীসহ সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরে স্বারকলিপি প্রদান করেছি।
জেলা শ্রমিকলীগের ত্রাণ ও পূর্ণবাসন সম্পাদক সৈয়দ শামীম বলেন, উপজেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে সাধারন ও শ্রমজীবি মানুষ তাদের নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্য ক্রয় করতে প্রতিদিন বাজারে আসতে হয়। তাদের বাহন একমাত্র ইজিবাইক, অটোরিক্সা ও লেগুণা। মহাসড়কের পাশে কোন বাইলেন না থাকায় সাধারন মানুষ চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছে।
এ সময় মানব বন্ধনে বক্তব্য রাখেন, মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ মোস্তফা কামাল , মোহাম্মদ হানিফ, বোরহানউদ্দিন, মহিউদ্দিন, কামাল হোসেন প্রমূখ।
বক্তারা এসময় অটো চালক, মালিকেরা তাদের ও সাধারন যাত্রীদের দূর্ভোগ, যোগাযোগে অটোরিক্সার গুরুত্ব তুলে ধরেন। এ সময় তারা অভিযোগ করেন, মোগরাপাড়া চৌরাস্তা, পিরোজপুর মোড়, ত্রিবর্দী মোড়, মদনপুর, কাঁচপুর ও বিশ্ব রোড মোড়ে অটো চালকদের হয়রানী করা হচ্ছে।
বক্তরা আরো বলেন, অসহায় বেকার যুবকরা তাদের পরিবার পরিজনদের জীবিকা নির্বাহের জন্য অটো রিক্সা চালিয়ে আসছে। এ থেকে তারা যে আয় করে তাতে করে কোন রকমে পরিবারের দৈন্দদিন খরচ নির্বাহ করে। মহাসড়কে অটো রিক্সা চলাচল বন্ধ করায় হাজার হাজার অটো রিক্সা চালকের পরিবার দূর্বিসহ জীবন যাপন করছে। মানব বন্ধনে অটো, সিএনজি ও লেগুণা চালকেদের স্ত্রী, সন্তানরা সুস্থ্যভাবে বেঁচে থাকার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন জানান।
তারা সড়ক পথে হাইওয়ে পুলিশের চাঁদাবাজি, অমানবিক নির্যাতন ও হয়রানীর অভিযোগ করেন।