যুবলীগ নেতা নবীর বিরুদ্ধে করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার না করলে আগামী ১৭ এপ্রিল মহাসড়ক অবরোধ….উপজেলা যুবলীগ সভাপতি নান্নু

0
663

 

আজকের সোনারগাঁওঃ যুবলীগ নেতা নবী হোসেনের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে যুবলীগ তথা আওয়ামলীগের বিরুদ্ধে ষরযন্ত্রের সামিল । দলের ভাবমূর্তি নষ্ট করতে কুচক্রিমহল ষরযন্ত্র করে একটি হত্যা মামলায় তাকে ঝরানো হয়েছে । বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি নবী হোসেন একজন ভদ্রলোক সবসময় বর্তমান আওয়ামীলীগ সরকারের তথা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেত্রীতে দেশের উন্নয়ন কর্মকান্ড জনগনের দোরঘোরায় তুলে ধরার জন্য প্রানপন কাজ করে যাচ্ছে । তাকে মিথ্যা মামলা দিয়ে ফাসিয়ে যুবলীগের কর্মকান্ড ব্যহত করে সরকারের বিরুদ্ধে ষরযন্ত্র করা হচ্ছে । আমরা সোনারগাঁ উপলো যুবলীগের পক্ষ থেকে এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই পাশাপাশি যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার না করা হলে আগামী ১৭ এপ্রিল ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ করা হবে । বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টার দিকে সোনারগাঁ উপজেলা যুবলীগের উদ্যোগে যুবলীগ নেতা নবী হোসেনের বিরুদ্ধে করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেন সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামী যুবলীগ । এসময় প্রধান বক্তা হিসাবে উপজেলা যুবলীগের সভাপতি হাজী রফিকুল ইসলাম নান্নু এসব কথা বলেন। অনেকের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা যুবলীগের সহসভাপতি আরমান আহম্মেদ মেরাজ,সাধারণ সম্পাদক আলী হায়দার.স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক আরিফুল ইসলাম রবিন,পিরোজপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী আহম্মেদ আলী তানবীর,বৈদ্যেরবাজার ২নং ওয়ার্ড মেম্বার ইসমাইল হোসেন প্রমুখ। উল্লেখ্য সোনারগাঁ উপজেলার আনন্দ বাজার এলাকার ছনপাড়া গ্রামে গত ৯ এপ্রিল সোমবার রাত সাড়ে ৭ টার সময় ছানাউল্লাহ ৪০ নামে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন । এ ঘটনায় নিহত ছানাউল্লাহর পিতা হাজী মিছির আলী বাদী হয়ে সোনারগাঁ থানায় ২২ জনকে আসামী করে একটি অভিযোগ দায়ের করেছে । উপজেলার বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়নের আনন্দবাজারের খামারগাঁও এলাকার হাজী মিছির আলীর পরিবারের সাথে দীর্ঘদিন যাবত প্রতিপক্ষের লোকজনের সাথে বিরোধ চলে আসছিল । এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল সোবার সাড়ে সাতটারসময় তার বড় ছেলে ছানাউল্লাহ বারদী এলাকা হইতে সিএনজি যোগে বাড়িতে আসার সময় ছনপাড়া এলাকায় প্রতিপক্ষের লোকজন পথরোধ করে গাড়ি থামিয়ে প্রথমে কিলঘুষি লাথি মেরে আহত করে পরে তার মাথায় এলোপাথারী ভাবে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে । তার ডাকচিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে এলে গুরুতর আহত ছানাউল্লাহকে রেখে পালিয়ে যায় । আত্মীয় স্বজন ও এলাকাবাসী গুরুতর আহত অবস্থায় ছানাউল্লাহকে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত বলে ঘোষনা করে। এ ঘটনায় বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি নবী হোসেনকে ৫ নং আসামী করে ২২ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছিল ।

উত্তর দিন