নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে র‌্যাবের সাথে বন্দুক যুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী নিহত

0
438

 

 গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী র‌্যাব ফোর্সেস সদর দপ্তরে র‌্যাবের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর বিশেষ দরবারে জঙ্গী বিরোধী কার্যক্রমে র‌্যাবের ভূমিকার প্রশংসা করেন এবং মাদক নির্মূলে অভিযান জোরদার করার জন্য র‌্যাব ফোর্সেসকে নির্দেশনা প্রদান করেন। ফলশ্রুতিতে র‌্যাব মাদকের বিরুদ্ধে সাড়াশি অভিযান পরিচালনা শুরু করে। দীর্ঘদিন যাবত মাদক ব্যবসায়ীরা পণ্যবাহী ট্রাক ও কাভাড©ভ্যানে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ককে ইয়াবা পাচারের রুট হিসেবে ব্যবহার করে আসছে। এই রুটে ইয়াবা পাচারকারীদের আইনের আওতায় আনার জন্য র‌্যাব-১১ গোয়েন্দা নজরদারী জোরদার করে।  এরই ধারাবাহিকতায় অদ্য ১৫ মে ২০১৮ তারিখ রাত ০৩০০ ঘটিকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক দিয়ে পণ্যবাহী ট্রাকে একটি ইয়াবা চালান নারায়ণগঞ্জে অতিক্রম করবে গোপন সূত্রে প্রাপ্ত এমন তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-১১ এর দুইটি টহল নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ থানার পাইনপাড়া এলাকায় চেকপোষ্ট শুরু করে। আনুমানিক ভোর ০৫৩০ ঘটিকায় চট্টগ্রাম থেকে ঢাকামুখি একটি সন্দিগ্ধ ট্রাককে চেকপোষ্টের ১ম টহল দল থামানোর জন্য সংকেত দিলে ট্রাকটির চালক সংকেত অমান্য করে পালানোর চেষ্টা করে। চেকপোষ্টের ২য় টহল দল ট্রাকটিকে থামানোর জন্য ব্যারিকেড দিলে ট্রাকের ভেতর থেকে চালকসহ ০৩ জন লোক দ্রুত নেমে র‌্যাবকে লক্ষ্য করে অতর্কিতভাবে গুলি ছোড়ে। এসময় র‌্যাবও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়। বেশ কয়েক মিনিট গোলাগুলির এক পর্যায়ে ০২ জন ইয়াবা পাচারকারী পালিয়ে যায়। ০১জন ইয়াবা পাচারকারীকে রাস্তার পাশ থেকে মারাত্মক আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। এসময় ০৩জন র‌্যাব সদস্যও আহত হয়। আহত ব্যক্তির কাছ থেকে ০২ রাউন্ড গুলিভর্তি ০১টি বিদেশী পিস্তল ও ০১ টি কাপড়ের থলে উদ্ধার করা হয়। কাপড়ের থলে তল্লাশী করে ১০ হাজার ৭শত পঞ্চাশ পিস ইয়াবা ও নগদ ২ লক্ষ ১৩ হাজার টাকা পাওয়া যায়। আহত ব্যক্তির পকেটে প্রাপ্ত জাতীয় পরিচয়পত্র ও ড্রাইভিং লাইসেন্স হতে জানা যায় যে, তার নাম মোঃ রাজমহল রিপন৥রিকন। তার বাড়ি মেহেরপুর পৌরসভার ০১নং ওয়ার্ডের কাসারী পাড়া গ্রামে। তার বয়স ৩৬ বছর। আহত মোঃ রাজমহল রিপন৥রিকনকে উদ্ধার করে দ্রুত নারায়ণগঞ্জের ভিক্টোরিয়া হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। ঘটনার প্রেক্ষিতে পরবর্তী আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।