পুলিশের সহযোগিতা না পেয়ে সুপারের কার্যালয়ে অভিযোগ

0
386

সম্প্রতি নারায়ণগঞ্জের আদালতে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে দায়ের করা একটি মামলাকে কেন্দ্র করে শনিবার রাতে আড়াইহাজারে মামলার বাদী নাছরিন আক্তারের ভাই দিনমজুর হাফিজ নামে এক যুবককে মোবাইলে ডেকে নিয়ে বেধড়ক পেটানো হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনার পর থেকে বাদীসহ তার পরিবারের লোকজন নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছেন। তবে পুলিশের কাছ থেকে কোন প্রকার আইনী সহযোগীতা না পাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ১৫ মে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন বাদী নাছরিনের ভাই হামলার শিকার হাফিজ। এদিকে আড়াইহাজার থানার পুলিশের এমন আচরণে এলাকায় সাধারণ মানুষের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

স্থানীয় দক্ষিণপাড়া এলাকার দিন মজুর হাফিজ মুঠোফোনে জানান, নারায়ণগঞ্জ আদালতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে তার বোন নাছরিন আক্তার একটি মামলা করেছেন। যাহার নং-৩১০/১৮ইং। আসামিরা সম্পতি আত্মসর্পণ করলে হাইজাদী ইউনিয়নের নারান্দী এলাকার ১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ও নাছরিনের শ্বশুর আনসর আলী ও তার স্বামী বাবু’র জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে গ্রেরণ করেন। তিনি আরও জানান, ১০ মে আনসর আলী জামিনে মুক্ত হন। এরই জের ধরে ১১ মে শনিবার রাতে আনসর আলীর লোকজন দিয়ে (০১৮৭৯-৩৬৪০৩২) মোবাইলে ডেকে নিয়ে আড়াইহাজার দুবাইপ্লাজার পেছনের সিঁড়িতে ৫ থেকে ৬জন সন্ত্রাসী তাকে বেধড়ক পেটাতে থাকেন। এসময় ডাক-চিৎকার করলে আশেপাশের লোকজন এগিয়ে এসে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। হাফিজ আরও জানান, এ ঘটনায় আড়াইহাজার থানায় গিয়ে লিখিত একটি অভিযোগ দিতে চাইলে গ্রহণ না করে তাকে বের দেয়া হয়। এর আগেও একটি লিখিত অভিযোগ দেয়া হলে পুলিশ তা মামলা গ্রহণ করেনি। যাহার নং-৮৬৪। পুলিশের সহযোগিতা না পেয়ে সর্বশেষ ১৫ মে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।