স্যাটেলাইট ব্যবহারে জাতীয় নিরাপত্তা নিয়ন্ত্রণে রাখা যাবে: মোস্তাফা জব্বার

0
288

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, নিজস্ব স্যাটেলাইট ব্যবহার করার অর্থ হচ্ছে জাতীয় নিরাপত্তার বিষয়গুলো আমরা নিজেদের নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারব। ইন্দোনেশিয়া থেকে কাজাখস্থান পর্যন্তবিতস্তৃত ভূখণ্ডে আমরা সেবা দিতে পারব। আমরা সফলভাবে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ মহাকাশে উৎক্ষেপণ করতে সক্ষম হয়েছি। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ চমৎকারভাবে তার যাত্রা অব্যাহত রেখেছে।
মঙ্গলবার দুপুরে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ মহাকাশে সফলভাবে উৎক্ষেপণ উপলক্ষে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতার সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, আমরা আমাদের যে ভূ-উপগ্রহ কেন্দ্র আছে সেখানে স্যাটেলাইটের সংকেত গ্রহণ করতে সক্ষম হয়েছি। এটি যাত্রাপথ অতিক্রম করে তার নিজের নির্দিষ্ট কক্ষপথে স্থাপতি হবে। তারপর পরীক্ষা-নীরীক্ষা করে আমরা এটি ব্যবহার করার সক্ষমতা অর্জন করব। আমাদের তিন মাসের মতো সময় লাগবে এটি কার্যকরভাবে ব্যবহার করার জন্য। আজকের পৃথিবীটা হচ্ছে তথ্য পারাপারের পৃথিবী। আর তথ্য পারাপারের জন্য নিরাপত্তা হচ্ছে একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। নিজস্ব স্যাটেলাইট ব্যবহার করার অর্থ হচ্ছে জাতীয় নিরাপত্তার বিষয়গুলো আমরা নিজেদের নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারব।
মন্ত্রী বলেন, এই স্যাটেলাইটের মাধ্যমে আমরা অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হতে পারব। বাইরে থেকে এখন আর স্যাটেলাইট ভাড়া নিতে হবে না। উপরন্তু আমরা বাইরের দেশে স্যাটেলাইট ভাড়া দিয়ে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করতে সক্ষম হবো।
এর আগে বেলা সাড়ে ১২টায় বঙ্গবন্ধুর সমাধি সৌধের বেদিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানান মন্ত্রী। পরে ফাতেহা পাঠ ও বিশেষ মোনাজাতে অংশ নেন। এ সময় তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহম্মেদ পলক এমপি, ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রাণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি এমরান আহমেদ এমপি, বিটিআরসির প্রাক্তন চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ এবং বিটিআরসির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মো. জহুরুল হক, শরীয়তপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য নাহিম রাজ্জাক উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার দুপুর সোয়া ১২টায় হেলিকপ্টারযোগে টুঙ্গিপাড়া আসেন। পরে দুপুর ১টার দিকে ঢাকার উদ্দেশে টুঙ্গিপাড়া ত্যাগ করেন।