আড়াইহাজারে জমি নিয়ে বিরোধ বাড়িঘরে হামলা ভাংচুর লুটপাট ও অগ্নীসংযোগ

0
341

আড়াইহাজার প্রতিনিধি:নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে দু’টি বসত বাড়িতে রাতের আধারে ভাংচুর লুটপাট ও অগ্নীসংযোগের ঘটনা ঘটেছে। এসময় ওই বাড়ি থেকে জমিসংক্রান্ত মূল্যবান কাগজপত্র লুট করে নিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহম্পতিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে স্থানীয় গাঙ্গপাড়া আতাদী এলাকায় এই ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার পর হামলাকারীরা পালিয়ে গেছেন। খবর পেয়ে রাতে ঘটনাস্থলে পুলিশ গেলেও কাউকে আটক করতে পারেনি। জানা গেছে, স্থানীয় গাঙ্গপাড়া আতাদী এলাকায় শ্রীবদীচর মৌজায় ৩৩শতাংশ জমি নিয়ে র্দীঘদিন ধরে ইকবাল ও আবেদ আলী গংয়ের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। এনিয়ে আদালতে আবেদ আলী গংয়েরা মামলাও করেছেন। যাহার নং- ০৫/১৮ইং ও ০২/১৮ইং। বুধবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে বিরোধপূর্ণ জমিটি দখলে নেয়ার উদ্দেশ্যে আবেদ আলীগংয়েরা ২০ থেকে ৩০ জন লোক মিলে একটি দু’চালা টিনের ঘর ভেঙে লুট করে নিয়ে যায়। একই সময় ইকবালগংদের বসত বাড়িতেও হামলা চালিয়ে ভাংচুর লুটপাট ও জমির মূল্যবান কাগজপত্রে অগ্নীসংযোগ করে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থলে পুলিশ গেলেও কাউকে আটক করতে পারেনি। কৃষক ইকবাল জানান, কয়েক ভর্রি স্বর্ণাকার ও ৮০ হাজার টাকা এবং জমির মূল্যবান কাগজপত্র লুট হয়েছে। এসময় হামলাকারীরা বেশ কিছু কাগজপত্র পুড়িয়ে দিয়েছেন এবং পুরো ঘরের আসবাবপত্র তচনছ করেছে।

এদিকে হামলাকারী আবেদ আলীর ছেলে প্রবাসি ওলিউল্যাহর স্ত্রী নার্গিছ বলেন, তাদের পৈত্রিক ওয়ারিশ সূত্রে পাপ্য জমি ইকবালগংয়েরা জোরপূর্বক দখল করে রেখেছেন। রাতের আধারে ঘর লুটের বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি এড়িয়ে যান। ঘটনাস্থল ফিরে আড়াইহাজার থানার এসআই তাহের জানান, ঘটনার সংবাদ পেয়ে রাতে ঘটনাস্থলে গিয়ে ছিলাম। একটি ঘর ভেঙে নিয়ে গেছে। বসত বাড়ির দু’টি ঘরে তান্ডব চালানো হয়েছে।

আড়াইহাজার থানার ওসি এম এ হক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ঘটনার সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে রাতেই পুলিশ পাঠানো হয়। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।