খোঁজ মেলেনি সোনারগাঁয়ে নির্বাচনী দায়িত্ব পালন শেষে ট্রলারডুবিতে নিখোঁজ ইউসিবি ব্যাংক ম্যানেজারের

0
2730

সোনারগাঁয়ে নির্বাচনের দায়িত্বে এসে ট্রলারডুবিতে নিখোঁজ ব্যাংক ম্যানেজার বোরহান

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রিসাইডিং অফিসারের দায়িত্ব পালন করা ইউসিবি ব্যাংক মেঘনাঘাট শাখার ম্যানেজার বোরহান উদ্দিনসহ দুজন ট্রলারডুবির ঘটনায় নিখোঁজ রয়েছেন।

বোরহান উদ্দিনের গ্রামের বাড়ি নরসিংদীর রায়পুরা থানার মুছাপুর ইউনিয়নের রামনগর গ্রামে। রোববার নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ ও গণনা শেষে কেন্দ্র থেকে ওই প্রিসাইডিং অফিসার, পুলিশ ও আনসার সদস্যরা ফেরার পথে মেঘনা নদীতে কালবৈশাখীর কবলে পড়ে তাদের বহনকারী একটি ট্রলার ডুবে যায়।

রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার চরকিশোরগঞ্জ-চরহোগলা গ্রাম এলাকার মেঘনা নদীতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ৩ পুলিশ সদস্য, ১ মাদ্রাসা শিক্ষক ও ১০ আনসার সদস্যসহ কমপক্ষে ১৭ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে ৫ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। আহতদের মুন্সীগঞ্জ সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। রোববার ওই ট্রলারডুবির ঘটনায় চরহোগলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার ও ইউসিবি ব্যাংক মেঘনাঘাট শাখার ব্যবস্থাপক বোরহান উদ্দিন, নারায়ণগঞ্জ ট্রাফিক পুলিশের পিএসআই সেলিম মিয়া ও নারী আনসার সদস্য রিতা আক্তার নিখোঁজ ছিলেন।

এদের মধ্যে নারী আনসার সদস্য রিতা আক্তারের লাশ সোমবার সকালে চরহোগলায় মেঘনা নদীর পূর্ব পাড় থেকে উদ্ধার করা হয়। এখনও বাকি দুজনের সন্ধান পাওয়া যায়নি বলে জানান, চরকিশোরগঞ্জ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. শাহ আলম। এদিকে নিখোঁজদের সন্ধানে সোমবার সকাল থেকে মেঘনার পাড়, সোনারগাঁ থানা ও উপজেলা প্রশাসনে তাদের স্বজনরা ভিড় করছেন।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্র জানায়, উপজেলার শম্ভূপুরা ইউনিয়নের মেঘনা নদীবেষ্টিত চরকিশোরগঞ্জ-চরহোগলা এলাকার চরহোগলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের ভোটগ্রহণ ও ভোট গণনা শেষে কেন্দ্র থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে প্রিসাইডিং অফিসার, পুলিশ ও আনসার সদস্যদের বহনকারী একটি ট্রলার সোনারগাঁও উপজেলা পরিষদে ফিরছিল। ট্রলারটি মেঘনা নদীর মধ্যবর্তী স্থানে এসে পৌঁছালে ঝড়ের কবলে পড়ে ডুবে যায়। এতে আহত হন পুলিশ সদস্য নুরুল ইসলাম (নায়েক), কনস্টেবল আরিফ, ওয়াকিল ইসলাম (পিসি), মাদ্রাসা শিক্ষক রুহুল আমিন, আনসার সদস্য ফরিদ, আবু তাহের, হিমেল, রসিদ, মানিক মিয়া, দেলোয়ার হোসেন, খাদিজা বেগম, আকলিমা, রাজিয়া, ট্রলারের মাঝি শাহ পরানসহ কমপক্ষে ১৭ জন।

রোববার রাত সাড়ে ১২টা পর্যন্ত ঘটনাস্থলে উদ্ধার অভিযান চালানো হয়। পরে সোমবার সকাল থেকে নৌবাহিনীর ডুবুরির দল, কোস্টগার্ড ও ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল, বিআইডব্লিওটিও এবং সোনারগাঁ থানার ওসি মনিরুজ্জামানের নেতৃত্বে দিনভর অভিযান চালাচ্ছে।

উত্তর দিন