নির্বাচন কর্মকর্তা জসিমের মিথ্যাচার ! পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদে জায়গা নেই !!

0
378

আজকের সোনারগাঁও ঃ পিরোজপুর ইউনিয়নবাসীর জাতীয় পরিচয় পত্র স্মার্ট কার্ড বিতরণের তারিখ ১৬ মে থেকে শুর হবে । পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এবং সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার বিশেষ আলোচনায় স্থান নির্ধারণ করা হয়েছে মেঘনা শিল্পসগরী স্কুল মাঠে ।

এ নিয়ে ইউনিয়নবাসীদের মধ্যে দেখা দিয়েছে চাপা ক্ষোভ ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া । এ ব্যাপরে গতকাল সোমবার সোনারগাঁ উপজেলা নির্বচন কর্মকর্তার বরাবর স্থান পরিবর্তনের আবেদন করেছেন পিরোজপুর ইউনিয়নের ভোটারগন । আবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে ,


ঢাকা টট্টগ্রাম মহাসড়কের মেঘনা এলাকার জানজটে অতিষ্ট এই পথের যাত্রীগন ঘন্টার পর ঘন্টা গাড়িতে বসে থাকতে হয় । এররকম পরিস্থিতিতে পিরোজপুর ইউনিয়ন বাসী কি করে মেঘনা গিয়ে স্মার্ট কার্ড সংগ্রহ করবে এরকম আলোচনা সমালোচনার ঝড় উঠেছে । পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদে পর্যাপ্ত কক্ষ এবং ইউনিয়ন পরিষদের মাঠ সাথে ঈদগাহ ময়দান তারপরেও নির্বাচন কর্মকর্তার স্থান সংন্কুলান না হওয়ার মিথ্যা অযুহাত দিয়ে বিশেষ সুবিধা গ্রহনের উদ্যেশে চেয়ারম্যানের সাথে গোপন আতাতের মাধ্যমে স্থান নির্ধারণ করা হয় মেঘনা শিল্পনগরী স্কুল মাঠ ।
এলাকাবাসী জানায় শুধু চেয়ারম্যানের গ্রাম ছারা বাকী সবগুলো গ্রামের লোকজনদের গাড়িতে করে মেঘনা শিল্প নগরী স্কুলে যেতে হবে যা বর্তমান যানজটে নাকাল পরিস্থিতে ভোগান্তীর কারণ । এলাকাবাসীর অভিযোগ নির্বাচন কর্মকর্তা কতৃত্ব ফলাতে গিয়ে স্বেচ্ছাচারিতা করেছে ।

এ ব্যাপারে পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান মাসুম বলেন নির্বচন কর্মকর্তার সাথে আলোচনা করে মেঘনায় স্থান নির্ধারণ করা হয়েছে । সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জসিম উদ্দিন বলেন , এই কাজে চারটি কক্ষের প্রয়োজন পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদে চারটি কক্ষ নাই বিধায় মেঘনা স্কুলে দেয়া হয়েছে । পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদে পর্যাপ্ত কক্ষ এবং পরিষদের সাথে মিলানো ঈদগাহ ময়দান থাকার কথা বললে তিনি শুর পাল্টে জানান পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের নির্দেশে মেঘনায় দেওয়া হয়েছে এতে আমার কিছু করার নাই ।

উত্তর দিন