বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সময় সাংবাদিকতা করতেন নারায়ণগঞ্জের নবাগত এসপি জায়েদ

0
308

 

নারায়ণগঞ্জ জেলার প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকদের নিয়ে মত বিনিময় করেছে নারায়নগঞ্জের নবাগত পুলিশ সুপার মোঃ জাহেদুল আলম পিপিএম(বার)। ওবিবার (২৯ডিসেম্বর) বিকেল সাড়ে ৩টায় নারায়নগঞ্জ পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এই মত বিনিময়টি অনুষ্ঠিত হয়েছে।
মত বিনিময় সভায় নারায়নগঞ্জ জেলার বিভিন্ন সাংবাদিকরা বক্তব্যে বলেন,এখানে এসপি হারুনের রেস রয়ে গেছে সাংবাদিকদের উপরে। তাই কিছু অসাধু সাংবাদিক অপরাধ করে চলছে এর ব্যবস্থা নেওয়া নিবেন। আমরা আপনার কাছে অনুরোধ করবো বিনা অপরাধে কাউকে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করবেন না,কোন প্রকার মিথ্যা মামলা দিলে আপনার কাছে এসে সেবা নেবার ব্যবস্থা করবেন,ছদ্মবেশে একদিন বঙ্গবন্ধু সড়ক ঘুরে দেখা,সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় বোবা হত্যা একটি মামলায় বিনা অপরাধ মানুষদের আসামী করে হয়রানি করা হচ্ছে তার সুষ্ঠু তদন্তসহ নারায়নগঞ্জ জেলার বিভিন্ন থানায় একই পুলিশ কর্মকর্তা বারবার এসে কাজ করা নজর দিবেন।

নারায়নগঞ্জ জেলার হকার্স সমস্যাটি নিয়ে পুলিশ ও রাজনৈতিক লুকোচুরি চলছে। আপনে মেয়রের সাথে বসে একটা পরিকল্পনা করে হকার্স সমস্যা সমাধানের ব্যবস্থা করবেন। সাংবাদিকদের বক্তব্যের প্রেক্ষিতে মত বিনিময় সভায় নারায়নগঞ্জ জেলার নবাগত পুলিশ সুপার মোঃ জাহেদুল আলম বলেন,আমি শতভাগ কাজ করেছি। আমাদের পেশায় অনেক তদবীর শুনিতে হয় কিন্তু আমি কারো তদবীরের কাজ করি না। সাংবাদিকরা হলো জাতির বিবেক। আমি সাংবাদিকদের ভালবাসি বেশি এবং সাংবাদিকদের সাথে চলি।

কারন আমি পুলিশে আসার আগে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সময় সাংবাদিকতা করতাম। তাই আমি যতটা না থানায় যাই তার থেকে বেশি প্রেস ক্লাবে যাই। এই জন্য আমি আগে মুক্তিযুদ্ধাদের সাথে মত বিনিময় করেছি কারন আমি মুক্তিযুদ্ধা পরিবারের সন্তান এবং তার পর আপনাদের সাথে বসেছি। আপনারা যে কোন সময় আমায় দাওয়াত দিবেন আমি আপনাদের সংগঠনে উপস্থিত থাকতে যথাসম্ভব চেষ্টা করবো।

আপনারা আমায় সাহায্য করবেন কারন নারায়নগঞ্জ জেলায় ২১শ পুলিশ আর আমরা নারায়নগঞ্জ সকল এলাকা চিনি না সাংবাদিকরা প্রতিটি এলাকা ইঞ্চি ইঞ্চি করে চিনে তাই আমাদের থেকে আপনারা ভালো জানেন। আমি নারায়নগঞ্জ জেলার মিডিয়া সেল আরো শক্তিশালী করবো যাতে যেকোন তথ্য আপনারা পেতে পারেন। আর এই জন্য একজন এডিশনাল এসপিও রাখা হবে।
তিনি আরো বলেন,নারায়নগঞ্জ হচ্ছে একটি ব্যস্ততম শহর। এখানে অনেক মানুষের বাস। তাই এখানে রাজনৈতিক কন্দল চলে বেশি। পুলিশ চাঁদাবাজি মুক্ত,জমিদখল মুক্ত,হকার্স। মুক্ত কাজ করবে না। ১৮৬১ সালের পুলিশের জন্য যে আইন আছে পুলিশ সেই মোতাবেক কাজ করবে।

আর আপনারা নারায়নগঞ্জ ভালো কাজের নিউজ গুলোর তুলনায় খারাপ নিউজ গুলো বেশি করেন তাই অনুরোধ করবো আপনাদের এই খারাপ নিউজগুলো থেকে একটু সচেতন থাকবেন। নারায়নগঞ্জ জেলায় পুলিশের কোন সোর্স থাকবে না। আপনারা পুলিশকে বিভিন্ন তথ্য দিয়ে সাহায্য করবেন
মত বিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলো নারায়নগঞ্জ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মনিরুল ইসলাম,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (গোয়েন্দা) সুবাস সাহা,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আল মামুন,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নূরে আলম,নারায়নগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি রুমন রেজা,নারায়নগঞ্জ সাংবাদিক ইউনিয়ন সভাপতি আব্দুস সালাম,সাধারন সম্পাদক আফজাল হোসেন পন্টি,সিদ্ধিরগঞ্জ থানা প্রেস ক্লাবের সাধারন সম্পাদক ফরহাদ হোসেন,সিদ্ধিরগঞ্জ রিপোর্টার্স ইউনিটির সাধারন সম্পাদক শরিফুল ইসলাম,প্রথম আলো নারায়নগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি মজিবুল হক পলাশ সহ নারায়নগঞ্জ জেলার বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ।