যৌতুকের দাবিতে দাবিতে সোনারগাঁওয়ে গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার চেষ্টা

0
157
 সোনারগাঁও (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি বোনের পাওনা টাকা ফেরত চাওয়ায় এবং যৌতুতের দাবিতে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার মোগরাপাড়া এলাকায় এক গৃহবধূকে তার স্বামী, দেবর ও ননদের জামাই পিটিয়ে হত্যার চেষ্টা করেছে। মারাত্মকভাবে আহত রোমানা নামেওই গৃহবধূকে প্রথমে সোনারগাঁও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করায়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাকে দ্রুত ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়।
এ ঘটনায় রোববার রাতে সোনারগাঁ থানায় একটি অভিযোগ করা হয়েছে। পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার টেঙ্গেরচর গ্রামের রুহুল আমিন মিয়ার ছেলে নাজমুল হোসেনের সঙ্গে সোনারগাঁর মোগরাপাড়ার ভাগলপুর গ্রামের মৃত মোতালেব মিয়ার মেয়ে রোমানা আক্তারের প্রায় ৯ বছর আগে বিয়ে হয়। বিয়ের সময় নাজমুল হোসেনকে যৌতুক হিসেবে দেড় লাখ টাকা দেয়া হলেও সে পরে আরো কয়েক দফায় মোট ৭ লাখ টাকা শ্বশুরবাড়ি থেকে য়ৌতুক হিসেবে নিয়ে যায়। আবার নতুন করে তার শ্বশুরবাড়ির লোকজনের কাছে বিভিন্ন সময় মোটা অংকের টাকা যৌতুক দাবি করে।
এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া বিবাদ লেগেই থাকত। য়ৌতুক ছাড়াও রুমানার বোন রুবির কাছ থেকে বছরখানেক আগে ২ লাখ টাকা ধান নেয় নাজমুল। গত রোববার বোনের পাওনা টাকা ফেরত চাওয়ায় নারায়ণগঞ্জের ওই গৃহবধূকে তার স্বামী, দেবর ও ননদের জামাই পিটিয়ে মারাত্মকভাবে আহত করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আহত ওই গৃহবধূর নাম রোমানা আক্তার।
এ ঘটনায় রোববার রাতে সোনারগাঁ থানায় একটি অভিযোগ করা হয়েছে। সোনারগাঁও থানার ওসি মনিরুজ্জামান জানান, রোববার রাতে এ ব্যাপারে একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্তের জন্য এসআই আজিজুর রহমানকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। দোষীদের শিগগিরই গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হবে।

উত্তর দিন